Exclusive FREE session on RIG VEDA for you, Register now!
Exclusive FREE session on RIG VEDA for you, Register now!

AYAN DEY

Action Fantasy


3  

AYAN DEY

Action Fantasy


দেরী করে দিলাম

দেরী করে দিলাম

3 mins 157 3 mins 157

" হ্যালো , এসিপি প্রদ্যুম্ন স্পিকিং । "

" ঠাকুর বলছি । আমার গব্বর চাই , জিন্দা নয়তো মূর্দা । "

" কিন্তু ঠাকুর সাব আপনার কথাতেই তো শুধু আমরা যেতে পারি না রামগড় । সরকার থেকে অনুমতি লাগবেই যে । আচ্ছা জয় , বীরুর কী হলো ? "

" আমি অবাক হচ্ছি তুমি এটা জানো না জয় বোমার আঘাতে মারা গেছে । বীরু আর বসন্তি সুখে সংসার করছে । "

" তাহলে হিসেব মতো তো গব্বরের জেলে থাকার কথা ! "

" হিসেবে সব চলে না এসিপি । গব্বর আবার জেল থেকে পালিয়েছে । তাই এবার ওকে খালাস করে দেবো জ্যান্ত পেলেই । "

" ঠিকাছে ঠাকুর সাব আমরা আজি রওনা দিচ্ছি । "

রামগড়ে দয়া আর অভিজিতের বেশী আর কাউকে আনলেন না প্রদ্যুম্ন । কয়েকজন কে জিজ্ঞাসা করতে জানা গেলো ঠাকুরের বাড়ী এখান থেকে অনেকটা দূর । অনেক দূর হাঁটার পর একটা গোরুর গাড়ীতে তিনজন উঠে বসলো ।

ঠাকুর সাহেবের হাভেলির কি পরিবর্তন ! এখন পেল্লায় অট্টালিকা । " আসুন এসিপি আসুন । "

" আমায় গব্বরের আস্তানা চেনানোর লোক দরকার । " বললেন এসিপি ।

" আস্তানা আর সেই নেই প্রদ্যুম্ন । জেল পালিয়ে ও এখন ডাকাতি ছেড়ে মাদকের ব্যবসায় লালে লাল হয়ে উঠেছে । ওর তাই এখন দুই মহল্লা বাড়ি । "

" কিচ্ছু ভাববেন না । শুধু দেখিয়ে দিন একবার । "

" ঠাকুরসাব কেমন আছেন ? " পিছন থেকে প্রশ্ন শুনে প্রদ্যুম্ন ও বাকি দুজন তাকালেন ।

" আরে বীরু আর বসন্তী , তোমরা ! "

" অনেকদিন ওর মাসির মুখ দেখেনি । আর আপনার সাথেও দেখা নেই ভাবলাম ঘুরেই আসি একবার ! কিন্তু এনারা ... ও আপনারা সি.আই.ডির তো ! "

" ঠিক ধরেছো বীরু । "

" তো ওনারা কেন ? "

" গব্বর জেল ছেড়ে এক বছর হলো পালিয়েছে আর এসেই ড্রাগসের ধান্দা শুরু করে দিয়েছে । শুনেছি বর্তমান জেলারকে খুন করেছে । যাক তাই ওদেরকে ডাকা ! গব্বর এবার মাদক সেবন করিয়ে গ্রামবাসীদের শেষ করছে ... না কিনলে খুন করছে । তুমি এসেছো ভালোই হয়েছে , ওদের পথ দেখিয়ে দাও । "

" ঠিকাছে । বসন্তী এখানে থাক । চলুন আপনারা । "

" ও বাবা এতো পুরো ফিল্মস্টারের বাড়ি ! " বলে দয়া ।

" ঠিক বলেছেন , শালাকে এবার মেরেই ফিরবো । "

গেটের মুখে দুই পাহাড়াদারকে দয়া অভিজিৎ ঘায়েল করে ভিতরে ঢুকলো ।

" স্যার আমি নীচের তলায় লোকগুলোকে দেখছি বীরুর সাথে । " বলে অভিজিৎ ।

ওপরের ঘর তখন দরজা বন্ধ দেখে প্রদ্যুম্ন বলে , " দরজাটা ভেঙ্গে দাও দয়া । "

এক লাথিতে দরজা পপাত চ । গব্বর আর দুই সাঁকরেদ বন্দুক নিয়ে খাড়া । দয়া কায়দা করে পিস্তলটা নামানোর ভঙ্গি করে ডিগবাজি খেয়ে ওদের পা লক্ষ্য করে গুলি করলো । বন্ধুক পড়তেই ওরা মেঝেতে বসে পড়লো ।

নীচের ঘরে কটা লোককে শায়েস্তা করে মাদক দ্রব্য সিজ করতে কিছুক্ষণ ব্যস । গব্বরকে ঠাকুরের কাছে এনে প্রদ্যুম্ন বলে , " এই নিন ঠাকুর । "

" বেশ , ওকে এবার ছেড়ে দাও , আমি হিসেবটা মেটাই । "

" না তা হয় না । ওর ফাঁসির বিচার হওয়ার চেষ্টা করবো । "

" এসিপি স্যার , আপনি জানেন না , ও আবার বেরিয়ে আসবে ! " বলে বীরু ।

" তা হয় না বীরু ! "

" হয় নিশ্চয়ই হয় । " বলে বীরু ।

" এর অনুমতি আমরা দিতে পারি না । " বলে অভিজিৎ ।

সুযোগ পেয়ে গব্বর প্রদ্যুম্নের পিস্তল ছিনিয়ে পালাতে গেলে ভিতর থেকে ঠাকুরের বৌমা এসে একটা বন্দুক হাতে বেরিয়ে সজোরে নিশানা করে ট্রিগার টিপে দেয় । গুলিটা পিঠে লাগতেই একটা তৃপ্তির হাসি হাসে বৌমা ।

" মাফ করবেন বাবা ! এটা করতে দেরী করে দিলাম । "


Rate this content
Log in

More bengali story from AYAN DEY

Similar bengali story from Action