Exclusive FREE session on RIG VEDA for you, Register now!
Exclusive FREE session on RIG VEDA for you, Register now!

AYAN DEY

Others


3  

AYAN DEY

Others


ঠিক বেতাল

ঠিক বেতাল

2 mins 165 2 mins 165

বিক্রম সেনের একমাত্র পুত্র আদিত্য । উনি অফিস থেকে ফেরার পরেই বিক্রমের কাঁধে উঠে পড়ে বছর পাঁচের আদিত্য । আর আবদার করে বসে নানারকম গল্প শোনানোর । আদর করে বিক্রমবাবু ওকে বেতাল বলে ডাকেন ।

খাবার টেবিল থেকে খাটের কিনার অবধি যেতে যেতে গল্প শুরু করলেন আজকের ।

" সীমন্ত আর হীরক একই অফিসে কাজ করে । দুজনের অখিলবাবুর তত্ত্বাবধানে কাজ করে । প্রথম প্রোজেক্ট যখন এলো তখন একটা ব্যাপার হলো ।

প্রোজেক্টে আরও দুজন থাকলেও বিশেষ করে তৎপর ওরা দুজনেই । কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই সীমন্ত বারে বারে হীরকের কাছে এসে বলতে থাকে , তার এই অসুবিধে , ওই অসুবিধে । তাই মাঝেমধ্যেই অফিস থেকে তাড়াতাড়ি বেরিয়ে যায় । আর সীমন্তের অতিরিক্ত কাজগুলো করে দিতে হতো হীরককে ।

সেদিনও বলতে এলো , " ভাই কাকার শরীরটা ভীষণ খারাপ করেছে , তাড়াতাড়ি বেরোতে হবে , বসকে বলে দিস , সময় নেই । "

" তুই বলে যা না ! "

" না ভাই বস মিটিংয়ে ! আমার দেরী হয়ে যাবে । "

রাগ হলেও কাজগুলো শেষ করে দিতো হীরক । কিন্তু ১টা বছর শেষেই তার গেলো মাথাটা গরম হয়ে । সে দেখলো মূল্যায়নে সীমন্তের ফল বেশী ভালো ।

কিন্তু সীমন্তের দুমদাম বেরোনোর অভ্যাস গেলো না । একদিন সেও ওই সময় ব্রেক নিয়ে সীমন্তের পিছু নিয়ে আড়ালে আড়ালে এগোলো । শেষমেশ দেখলো , সীমন্ত একটি মেয়ের সাথে দেখা করতে এসেছে । গোপনে সে ক্যামেরাবন্দী করলো বিষয়টা ।

একদম বসকে গিয়ে দেখালো ছবিটা । " দেখুন এই সীমন্তের এমার্জেন্সি আর গ্রেড পায় ভালো ও । "

" আচ্ছা কাল আসুক দেখছি ! "

পরদিন এমনি সাধারণ কটা প্রশ্ন করে মীমাংসা করে দিলেন বস । কোনোভাবে কটাদিন জোরদার কাজ করে আবার জলদি বেরোতে লাগলো ।

দুটো বছরের শেষেও একই ভাবে সীমন্ত গ্রেডে এগিয়ে গেলো ।

আদিত্য বলে উঠলো , " তবে এখানে দোষী কে ? "

বিক্রমবাবু বললেন , " কেন সীমন্ত ! আবার কে ? "

কথা শেষ হতে না হতেই আদিত্য কাঁধ থেকে নেমে ছুটে মায়ের কাছে ঘুমোতে চলে গেলো । বাবা হাসতে হাসতে মনে মনে বললেন , " ঠিক বেতাল ! "


Rate this content
Log in