Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Indrani Samaddar

Abstract Others


4.3  

Indrani Samaddar

Abstract Others


লকডাউন ( দশম পর্ব )

লকডাউন ( দশম পর্ব )

2 mins 286 2 mins 286


স্কুল ড্রেস পড়ে পিঠে ব্যগের বোঝা নিয়ে সাত সকালে স্কুলে ছুটতে হবেনা। স্কুলে যেতে হবেনা কিন্তু পড়া হবে। ক্লাসরুম ছাড়াই ক্লাস হবে। অন্য অভিজ্ঞতা। মেয়ের গত রাতে চিন্তায় চিন্তায় ঘুম আসতে অনেক দেরি হয়েছে । Whatsapp এ নতুন ক্লাসের নতুন গ্রুপ হয়েছে লকডাউনে বই কেনা সম্ভব হয়নি। তাই আজ যে সব ক্লাস আছে গতকাল সেই সব পড়া মিসেরা স্কিন শর্ট তুলে গ্রুপএ পাঠিয়ে দিয়েছেন। যে অ্যাপের সাহায্যে পড়াশুনো চলবে, প্লে-স্টোর থেকে গতকাল সেই অ্যাপ ডাউনলোড করা হয়েছে। আজ থেকে স্কুলের অনলাইন ক্লাস শুরু। ক্লাস শুরু হবে দশটায়। আজ নতুন ক্লাসের প্রথম দিন।


  মেয়ের যখন ঘুম ভাঙ্গল ঘড়ির কাঁটা সকাল নটা ক্রশ করে এগিয়ে চলেছে। মেয়ে ব্রাশ করে সকালের খাবার খেয়ে মোবাইল হাতে অনলাইনের ক্লাস করা শুরু করে। প্রযুক্তির উন্নতিতে আজ মানুষের হাতে কত সুযোগ সুবিধা। শুধুমাত্র প্রযুক্তির উন্নতিতে বিভিন্ন মানুষ সামাজিক দূরত্ব রেখে নিজের বাড়িতে বসে নিজের কাজ করে চলেছেন। ছাত্র- ছাত্রীরা বাড়িতে বসেই স্কুলের পড়া করছে। শিক্ষক শিক্ষিকারা পড়াচ্ছেন। কেউ বা অফিসের কাজ করছেন। দীর্ঘশ্বাস ফেলে ভাবি যদি প্রযুক্তির সাহায্যে রান্না না করেই রান্না হয়ে যেত তাহলে বড্ড ভালো হত।


আমি দৈনন্দিন কাজ সারতে থাকি। টিভি দেখতে ভালো লাগছে না। সারা খবর জুড়ে শুধুই করোনা।খবর শুনে মন ভারাক্রান্ত হয়। বেলা একটায় দেখি মেয়ে চেয়ার টেনে ডাউনিং টেবিলে বসে খাবার জন্য হাঁকডাক শুরু করে। আমি বলি আগে স্নান করে আসতে। সে বাধ্য মেয়ের মত স্নান করতে চলে যায় । কিছুক্ষণের মধ্যে সে কাক স্নান করে খেতে আসে। তার আজ বেজায় তাড়া আবার নাকি দুটোর থেকে ক্লাস। বিকেল চারটের সময় হাসি হাসি মুখে মেয়ে এসে আমায় জড়িয়ে ধরে জানায়, আজকের মত অনলাইন ক্লাস শেষ। আমি হাসি ফিরিয়ে দিয়ে বলি আমার ফোন ফেরত দিতে। সে জানায় স্কুল হলেও বন্ধুদের সঙ্গে গল্প হল কই ? তাই এখন বন্ধুরা এক সঙ্গে whatsapp এ গল্প করতে চায় খানিকক্ষণ। আমার সম্মতি পেয়ে সে ফোন নিয়ে উধাও হয়। ব্যালকনিতে দাঁড়িয়ে বিকেলে চায়ের কাপ হাতে একদল পাখির বাড়ি ফেরা দেখে মনে হল অফিস টাইমে এক দল মানুষের মেট্রো করে বাড়ি ফেরা, অটোর লাইনের ভিড় – নিজের অজান্তেই দীর্ঘশ্বাস... আবার কবে চেনা শহর আগের মত হবে কে জানে! দেখতে দেখতে রাত এসে গেল।মেয়ে আজ ক্লান্তিতে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়েছে। কালকেও স্কুলের ক্লাস আছে। আমিও ঘুমোতে চললাম।


Rate this content
Log in

More bengali story from Indrani Samaddar

Similar bengali story from Abstract