arijit bhattacharya

Horror Classics


2  

arijit bhattacharya

Horror Classics


ভুট্টাক্ষেতের ভয়ঙ্কর

ভুট্টাক্ষেতের ভয়ঙ্কর

1 min 190 1 min 190

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় ছোট্ট গ্রাম রাশব্রুক। গ্রাম হলে কি হবে,ভুট্টা উৎপাদনের সুবাদে এই গ্রামকে সবাই চেনে। গ্রামের মানুষের নীতিবোধ খুব উচ্চদরের,গ্রামে একটা ছোট্ট চার্চও আছে। এই গ্রামেরই এক সম্পন্ন ব্যক্তি জন টেনিসন। বিশাল ফার্ম আছে,ফার্মহাউসের সংলগ্ন দিগন্তবিস্তৃত ভুট্টাক্ষেত,সেই ভুট্টাক্ষেতে অন্তত তিনশো -চারশো জন কৃষক কাজ করে।


কিন্তু বেশ কয়েকদিন মন ভালো নেই জনের। প্রতি শনিবার জনের ভুট্টাক্ষেতকে কে বা কারা তছনছ করে যাচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে,প্রতি শনিবার বারবেলায় আবির্ভাব ঘটে সেই নারকীয় বিভীষিকার।তার ভয়ঙ্করতা অবর্ণনীয়। এর মধ্যেই পাওয়া যায় পাঁচজন চাষীর ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ। এরপর আর স্থির থাকতে পারে না জন। সে ঠিক করে, পরের দিন শনিবারের বারবেলায় ভুট্টাক্ষেতে সেই টহল দেবে। হ্যাঁ,অনেক হয়েছে । এবার একটা হেস্তনেস্ত দরকার। শনিবারের বারবেলা। পাঁচজন বিশ্বস্ত সঙ্গীর সাথে ভুট্টাক্ষেতে টহল দিচ্ছে জন।


পশ্চিম দিগন্তকে আবিররঙে রাঙিয়ে সূর্যদেব বিদায় নেবার প্রস্তুত নিচ্ছেন। হঠাৎই আকাশ বাতাস কাঁপিয়ে শোনা যায় ক্ষুদার্ত জন্তুর অপার্থিব গর্জন। তারপর অদৃশ্য থেকে আবির্ভূত হয় সেই নারকীয় বিভীষিকা। কালো কুকুর,কিন্তু অতবড়ো কালো কুকুর জন জীবনে দেখে নি। তার আবার তিনটে মুখ,চোয়াল থেকে বেরিয়ে আসছে ধারালো দাঁত। জ্বলন্ত রক্তবর্ণ চোখ মাঝেমাঝেই অগ্নিবর্ষণ করছে। বিপদ বুঝে বিশ্বস্ত সঙ্গীরা আগেই পালিয়েছে। সেই নারকীয় বিভীষিকা চাপা গর্জন করতে করতে এগিয়ে আসছে জনের দিকে। হেঁটে আসছে না,যেন বাতাসে ভেসে আসছে। মাটিতে জ্ঞান হারিয়ে লুটিয়ে পড়ল জন।


Rate this content
Log in