Ajoy Kumar Basu

Fantasy

2  

Ajoy Kumar Basu

Fantasy

অসম্ভব বিচার

অসম্ভব বিচার

2 mins
798



এমন কথা কেউ শুনেছে ? সবচেয়ে সেরা মিষ্টি কী খুঁজে বার করতে হবে। এটা করা সম্ভব ? সকাল বেলা হিঙের কচুরির সঙ্গে গরম গরম জিলিপি আর মিষ্টি জিভ -পোড়া চা। রাবড়ির স্থান নেই। তাই বলে দুপুরের পাতে জিলিপি ? নৈব নৈব চ , ওখানে দরকার নতুন গুড়ের সন্দেশ। কিন্তু সবার চাইতে ভালো তো শুনেছি পাউরুটি আর ঝোলা গুড়।


 আবার ভাব বইয়ের কথা। সব বইতো ভালো নিজের জগতে ফিজিক্সের জগতে Finnman Lectures ,আর কবিতার জগতে সঞ্চয়িতা ,হাসির ফোয়ারাতে শিব্রাম না Wodehouse, গীতা না বিবেকানন্দ রচনাবলী , মার্কস না অমর্ত্য সেন ,কোনটা বেশী ভালো বিচার করতে গেলে একুশে আইন হবে না, ২০২১শে আইন চাই। আমি তো ভেবে ভেবে হুক মুখো হয়ে যাচ্ছি -মনটাকে শিব ঠাকুরের আপন দেশে নিয়ে গিয়েও no কূল ,no কিনারা। ফুটোস্কোপ দিয়ে মগজের ঘি তন্ন তন্ন করেও কোনো পথ পাচ্ছি না। তবে কি আমার চেষ্টা ছায়ার খোঁজে ? একজন বিজ্ঞাপন দিয়েছিলো


ছায়া ধরার ব্যবসা করি তাও জানো না বুঝি ?

রোদের ছায়া ,চাঁদের ছায়া ,হরেক রকম পুঁজি !


তাকে ধরতে হবে।

হটাৎ মগজটা খুলে গেল -সেরা বই কোনটা ? সেই বইটা যে বলেছে বুঝি - না বুঝি :


আয় যেখানে খ্যাপার গানে        নাইকো মানে নাইকো সুর।

 আয়রে যেথায় উধাও হাওয়া        মন ভেসে যায় কোন সুদূর।


সেরা বই খুঁজে চলেছি বুদ্ধি আর বিবেচনার জাহাজে চড়ে ,সেরাটিকে হিয়ার মাঝে লুকিয়ে রেখে -তাইতো দেখতে তারে পাইনে আমি ,সেতো আমার সব হাসিতে ছড়িয়ে।



সুকুমার রায়ের আবোল তাবোল ,

সেতো সেরা বইয়ের ম্যারাথনে এত এগিয়ে যে নজর পরে নি।



আবোল তাবোল বাচ্চাদের বই ? ভুল, এক্কেবারে ভুল। সেতো সর্বকালের সর্বজনের।


হেড অফিসের বড়বাবু তো এখনো তার গোঁফ চুরির ভয়ে কি লাফালাফি করে চলেছে ,একে ওকে চোর বলেই যাচ্ছে।

কংস রাজের বংশধরের খোঁজে আকাশেবাতাসে ছড়িয়ে দিচ্ছে পাত্রী পরিচয়।

খুড়োর কল তো নিত্য দিনের ঘটনা : কালো টাকার জিলিপি খুঁজেই চলেছে ,এদিক ওদিক না দেখে।

ভীষ্ম লোচন এখন পাড়ায় পাড়ায় ;বড়ো বড়ো কালো বাক্স করে শর্মাজী কানের পোকা বার করে দিচ্ছেন - আইন

করে কে তাকে আটকাবে ?


শূন্য মাঝে ঘূর্ণা লেগে ডিগবাজি খায় পখ্খী ,

সবাই হাঁকে ,'আর না দাদা ,গানটা থামাও লখ্খী। '


আর শুধু কি আমাদের দেশ ? বড়লোক বড়োলোক দেশগুলো এ ওকে পাগলা ষাঁড়ের মতো তাড়া করে বেড়াচ্ছে -

-কেউ জানেনা পাগলা ষাঁড়ে করলে তাড়া কেমন করে ঠেকাব তায় ।



হাসপাতালে , নার্সিং হোমে হোমে একই বার্তা


একবার দেখে যাও ডাক্তারি কেরামত -

কাটা ছেঁড়া ভাঙা চেরা চটপট মেরামত।



আবোল তাবোলের প্রতিটি লাইন অভ্রান্ত বেদ বাক্য -বিশ্ব জনের মনের প্রতিচ্ছবি। তাইতো ইচ্ছে হয় আবোল তাবোল বইয়ের কোমর ধরে পৃথিবীকে দেখাই ,দেখরে সবাই


ওরে আমার রান্না হাঁড়ির কান্না হাসির ফোরন দার,

ওরে আমার জোছনা হওয়ার স্বপ্ন ঘোড়ার চরন দার।


Rate this content
Log in

Similar bengali story from Fantasy