Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Sagnik Bandyopadhyay

Comedy Inspirational


3  

Sagnik Bandyopadhyay

Comedy Inspirational


আনন্দ

আনন্দ

2 mins 244 2 mins 244


রিয়া আর অনিকের সাংসারিক জীবনের পাঁচটা বছর কেটে গেছে। তাদের সুখের জীবন। দুজনেই কর্মরত। রিয়াকে সংসার সামলে চাকরিতে যেতে হতো। তাদের দুই বছরের একটি সন্তান আছে। তার নাম রনিক। আসলে রিয়া আর অনিক- দুজনের নাম মিলিয়ে রাখা হয়েছিল এই নামটি।রনিককে তার ঠাকুমার কাছে রেখে যেত। মা ছাড়া রনিকের কষ্ট হতো। তাছাড়া রিয়া ও অনিকের ফিরতে ফিরতে রাত হতো বলে একসাথে দুটো গল্প করা বা বসে একসাথে খাওয়া প্রায় হতো না বললেই চলে। লকডাউনের কারণে দুজনেই এখন গৃহবন্দী। দুজনেই work from home করছে। রিয়া এতদিন প্রাণ খুলে হাসার সময় পেত না। এখন সে রনিক অনেকটা সময় দিতে পারে। তাকে নিয়ে প্রাণ খুলে হাসে। দেখে অনিকের মনটা প্রফুল্ল হয়ে ওঠে। রিয়া অনিককে বলল," এখন লকডাউন। এখন থেকে তুমি রাতের রান্নাটা করবে।" শুনে অনিকের আত্মারাম খাঁচা। সে মুখ বিকৃত করে বলে উঠল,"রান্না? আমি করব?"


"হ্যাঁ! তুমি করবে। তুমি তো খুব বলতে, বন্ধুদের ফিষ্টে তুমি একা রান্না করতে! পাঁচটা বছর রান্নার কথা বললেই খালি চাকরির দোহাই দিয়ে কেটে পড়েছো। এবার করে দেখাও দেখি! তুমি কত রান্না জানো?"- বলল রিয়া। অনিক স্ত্রীর কাছে নত হবে না, সে বলে উঠলো,"হ্যাঁ আমি করেছি। আচ্ছা আমি করব এটা কি আর বড় ব্যাপার !" শুনে সহাস্যে রিয়া বলল,"এই এই না হলে আমার অনিক।" রিয়া বিলক্ষণ জানতো অনিক রান্না করতে পারবে না। তাই সে আগেই রান্না করে লুকিয়ে রেখেছিল। অনিক রান্নাঘরে গিয়ে ফ্যাসাদে পড়েছে। রিয়া দূর থেকে দেখে লুকিয়ে লুকিয়ে হো হো করে হেসে উঠে। অনিক রিয়াকে দেখে বাধ্য হয়ে মুখে হাসি দেখায়। রিয়া বলল,"আর কতক্ষণ?" "এইতো হয়ে এসেছে। আসলে ইউটিউব এর নেটটা খুব স্লো যাচ্ছে"- তৎক্ষণাৎ উত্তর দিল অনিক। কিন্তু অনিকের মনে নেই নেট প্যাক শেষ হয়ে গেছে অনেক আগেই। রান্নাও অর্ধেক হয়ে থমকে গেছে। আর জানেনা কি করবে।


এদিকে রাত বাড়তে থাকে, রিয়া আবার জিজ্ঞাসা করে,"হলো?" তখন নিরুপায় দেখে অনিক বলল,"এই নাও অর্ধেক হয়েছে।" রিয়া তার হাত থেকে খাবারটা নিয়ে পুরোটা খেয়ে নিল আর তার পর বলে উঠলো, "অসাধারণ করেছো!" শুনে অনিক হতবাক। অনিক কিছু বলার আগেই রিয়া নিজের তৈরি খাবার এনে অনিককে দিল চমকে আর বলল,"চলো, আমরা সবাই মিলে একসাথে আজকে খাবো।" রিয়া, অনিক,রনি আর ওদের মা তিন জনে মিলে গল্প করতে করতে রাতের ডিনার সারলো।


Rate this content
Log in

More bengali story from Sagnik Bandyopadhyay

Similar bengali story from Comedy