End of Summer Sale for children. Apply code SUMM100 at checkout!
End of Summer Sale for children. Apply code SUMM100 at checkout!

AYAN DEY

Tragedy


1.3  

AYAN DEY

Tragedy


ওয়ে ট্যাক্সি বাঁয়া যা

ওয়ে ট্যাক্সি বাঁয়া যা

4 mins 2.0K 4 mins 2.0K

" লিন লিন লামুন লামুন , আরে কি হলো লামুন ? "

" বাসটা সঠিক জায়গায় দাঁড়াবে তবে নামবো । এই রেষারেষির মধ্যে ... "

" আরে ধুর , হবে না নামতে , লে ভাই চল চল । "

সামনের সিটে বসে পুরো বিষয়টা দেখছিল অজিত । মাথায় চ​ড়চ​ড় করে রাগ উঠছিলো । একে প্রাণ ওষ্ঠাগত এই গরমে , তার উপর এই ড্রাইভার আর কন্ডাক্টরের ব্যবহারে যে রাগটা জমছিলো তাতে সে জানে সে উঠে দাঁড়ালেই আজ কিছু একটা হয়ে যাবে ।

বাস চালাতে যাবে ঠিক সেই সম​য় সে বললো , " বাসটা সাইডে করে ওনাকে নামা । "

সেই কদর্য ভাষায় উত্তর , " বেশী বকবেন না । নামতে বলেছি উনি নামেন নি । "

ভদ্রমহিলা একটু প্রোটেস্ট করলেন বটে কিন্তু কাজ দিলো না । বাস সেই রেষারেষির খেলায় ফের অংশগ্রহণ করলো । অজিত ভদ্রমহিলাকে বললো , " আপনি একটু উঠে দাঁড়ান , আমি নামছি সামনের স্টপে , চিন্তা নেই ঠিক করে নামবেন । "

মাঝব​য়সি ভদ্রমহিলা নিজের ছেলের ব​য়সি একজনের এইরকম ব্যবহারে যথেষ্ট স্বস্তি পেলেন । অজিত নামবে তো বটেই কিন্তু তার রাগ তখন চরমে । প্রতিদিন এই রেষারেষির চক্করে কত অ্যাক্সিডেন্ট ঘটে চলেছে , যে তার কোনো ইয়ত্তা নেই | তবু কোনো শিক্ষা নেই । তার জেদ চেপে গেলো আজ যথাযোগ্য শিক্ষা দেবেই এই কন্ডাক্টর আর ড্রাইভারকে ।

ভাগ্যবশত সুযোগও এসে গেলো । সামনের স্টপেজে অজিত নিজে ভদ্রমহিলাকে নামতে সাহায্য করে একটা অটোয় ঝট করে তুলে প​য়সা দিয়ে ফের বাসে উঠলো । আজ মনে হ​য় বাড়ি ফেরাটা একটু দেরীই হবে । কিন্তু দুই বাসের টক্কর যে হারে দিন কে দিন স্থানে স্থানে বেড়েই চলেছে তার একটা হেস্তনেস্ত হওয়া দরকার ।

কন্ডাক্টর অজিতকে ফের উঠতে দেখে একটু অবাক তো হলোই কিন্তু মুখে কিছু বললো না । অজিত ছোটো থেকেই বেশ ডাকাবুকো কিন্তু সহজে রাগেও না । তবে রাগলে দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়ে । প্রতিদিনই কলেজ থেকে ফেরার পথে এই জিনিস দেখে এবং মনে মনে মারাত্মক রাগ হ​য় । আজ এর একটা মীমাংসা করা দরকার ।

এই ভেবে সে তার প্ল্যান সাজালো । এবার রেষারেষি শুরু হলেই সে মাঠে নামবে । তার প্ল্যান আরও খানিকটা সহজ করে দিলো ড্রাইভার । কোনো এক সিগন্যালে গুটখা কিনতে পাঠালো কন্ডাক্টরকে । সামনের দোকান থেকে পুরিয়া কিনতে সম​য় লাগলো দশ সেকেণ্ড । অজিত তারই ব​য়সি একটা ছেলের হেল্প চেয়েছিলো । কন্ডাক্টর পুরিয়া কিনে বাসে উঠতে যাবে কি ওই ছেলেটা ড্রাইভারকে হুমকি দিয়ে গাড়ি স্টার্ট করতে বলে ।

ছেলেটার হাতের চেনটা এতো শক্ত করে ড্রাইভারের গলায় চেপে বসেছিলো যে গলা দিয়ে কথা বেরোচ্ছিলো না । এইবারে অজিত পাদানিতে নেমে গাড়ি স্টার্ট হতেই কন্ডাক্টরের হাতটা ধরে ফেলে । তার এক পা পাদানিতে আরেকটা ঝুলছে । অজিত ইশারায় গাড়ি আরও স্পিডে চালাতে বললো ।

বাসের সমস্ত যাত্রী তখন সিটে এঁটে বসে একটা সিনেমা দেখতে লাগলো যেন । কে কোথায় নামবে ভুলেই গেলো । কন্ডাক্টর একহাতে অজিতকে ধরে , এক পা পাদানিতে দিয়ে , অন্যহাতে পুরিয়া আর অন্য পা ঝুলন্ত অবস্থায় চিৎকার শুরু করলো । ততক্ষণে সাইডের বাসটা ওভারটেক করার জন্য প্রায় গায়ে এসে পড়েছে । কন্ডাক্টরের আর্ত চিৎকার , " মাথাই চেপে দেবে , তুলে ধরুন দাদা । "

অজিত বললো , " উহুঁ না না , তা হবে না । ওই যে ওই বাসটা বেরিয়ে যাবে তো ! " খানিক টেনে নিলো অজিত । ফের টান হাল্কা ।

এবার আরও জোর চিৎকার , " দাদা এই অবস্থায় পড়ে না গেলেও হার্টফেল হয়ে যাবে । প্লিজ টেনে ভিতরে নিন । "

" তোদের এই রেষারেষির ফাঁকে বাস থেকে নামতে গিয়ে কত প্যাসেঞ্জারের কত ক্ষতি হয়েছে তার কোনো হিসাব আছে বল হতভাগা বল । "

এমন সম​য় পাশের বাসের ড্রাইভারের চোখে পড়ে ব্যাপারটা । ভয়ে চোখ ব​ড় করে ঢোক গেলে ।

অজিত ওদিকে তাকিয়ে বলে , " যাবো নাকি দাদা হাওয়া খাওয়াতে ? "

ড্রাইভারের তখন যা তা অবস্থা সে জিভ বার করে বলে, " না না চাই না । এই তো আস্তেই চালাচ্ছি । "

এবার কন্ডাক্টর বললো , " আর হবে না দাদাভাই , এবার তুলে নিন । "

অজিত এবার তুলে নিলো কন্ডাক্টরকে । দুই বাসেরই স্পিড কমলো ।

অজিত এই পুরো ঘটনার ভিডিও করতে ফোনটা একজনকে দিয়েছিলো । ভিডিও শেষ হওয়ার আগে অজিত সাবধানবাণী দিলো , " আপামর ড্রাইভার , কন্ডাক্টর সাবধান । তোমরা আমাদের মারতে চাইলে তোমাদের নিয়ে মরবো । অত​এব সাবধান । "

এক স্টপেজে অজিত নেমে গেলো । ইউটিউবে আর ফেসবুকে দিতে ভিডিও ভাইরাল হতে সম​য় লাগলো না । খবরেও উঠে এলো এই ঘটনা । সে চ্যানেলে গিয়ে বললো , " এটি একটি আইন বহির্ভূত কার্যকলাপ । তবে এছাড়া উপায় ছিলো না । পুলিশ চাইলে অ্যারেস্ট করতেই পারেন । "

ততক্ষণে খবরের ওই চ্যানেলের অফিসের বাইরে প্রচুর লোকের সমাগম । সবাই অজিতের প্রশংসায় পঞ্চমুখ । ওই ঘটনাতে যে বাকি বাসের ড্রাইভার আর কন্ডাক্টর যে বেশ কঠোর বার্তা পেয়েছে তা তাদের বার্তা থেকে স্পষ্ট হলো । চ্যানেলের অফিস থেকে বেরিয়ে জনতা তাকে মাথায় তুলে হুল্লোড় করতে লাগলো ।


Rate this content
Log in

More bengali story from AYAN DEY

Similar bengali story from Tragedy