Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Sanghamitra Roychowdhury

Abstract Inspirational Others


4  

Sanghamitra Roychowdhury

Abstract Inspirational Others


লকডাউনের রোজনামচা ১৫

লকডাউনের রোজনামচা ১৫

2 mins 305 2 mins 305

ডিয়ার ডায়েরি, ৮ই এপ্রিল, ২০২০... লকডাউনের পঞ্চদশ দিনে "আমার কুর্নিশ করোনা যোদ্ধাদের"


স্বাস্থ্য পরিষেবায় সরাসরি যুক্ত ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, গবেষক, প্যাথলজিক্যাল ল্যাবকর্মী বা ওষুধ বিপণীর কর্মীরা... নিজেদের নিরাপত্তার তোয়াক্কা না করে লড়ে যাচ্ছেন এই ঘোর অন্ধকারাচ্ছন্ন সময়ে এই মারণ ভাইরাসের আক্রমণের বিরুদ্ধে। কুর্নিশ জানাই তাঁদের। কুর্নিশ পুলিশকর্মীদের, তীব্র দহন উপেক্ষা করে যাঁরা শুধু নিজেদের কর্তব্যটুকুই করছেন না, নিঃশব্দে করে চলেছেন সমাজসেবা। এমনকি গৃহবন্দী মানুষদের সচেতনতা বাড়াচ্ছেন, বিনোদন দিতে চেষ্টা করছেন। কুর্নিশ জানাই তাঁদের। এই অস্বাভাবিক দিনগুলোতে আমাদের দুধওয়ালা দাদা ও ভাইয়েরা মাস্ক এবং গ্লাভস পরে নিয়মিত প্রতিটি বাড়িতে ভোরবেলা পৌঁছে যাচ্ছেন দুধের প্যাকেট নিয়ে, একদিনও বাদ পড়ছে না। কুর্নিশ জানাই তাঁদের। মুদিখানার দোকানদারটি বা সবজি বিক্রেতাটি হাসিমাখা দৃষ্টিতে, মুখে তো মাস্ক, হাসিটা তাই চোখেই ঝিলিক দিচ্ছে... দোকান খুলে রেখে আমাদের মালপত্র দিচ্ছেন, তাঁরাও কিন্তু করোনা যুদ্ধের সৈনিক।


তাঁরাও আমার শ্রদ্ধেয়, জানাই তাঁদের কুর্নিশ। অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবায় যুক্ত বিদ্যুৎকর্মী, দূরভাষকর্মী, আন্তর্জালকর্মী, সংবাদকর্মী, ব্যাঙ্ককর্মী এবং আরো জানা অজানা এমার্জেন্সি পরিষেবায় যুক্ত যাঁরা, সেইসব প্রত্যেক করোনা যোদ্ধাকে জানাই কুর্নিশ। যে সাফাইকর্মীরা একদিনের জন্যও কাজে ফাঁকি দেওয়ার কথা মাথায় আনছেন না, তাঁদেরও কুর্নিশ। যাঁরা দরিদ্র ও নিরন্ন পরিযায়ী শ্রমিকদের অন্ন সংস্থানের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন, দলমতনির্বিশেষে যে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা দরিদ্র অসংগঠিত শ্রমিকদের বিপদে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন, তাঁরা প্রত্যেকে প্রমাণ করছেন যে, রণে - বনে - জলে - জঙ্গলে... শেষ পর্যন্ত মানুষই থাকে পাশে মানুষের পাশে। বুক দিয়ে আগলে রাখে।


তাঁদের প্রত্যেককে আমার কুর্নিশ। সকলের মিলিত শক্তিতে, সকল শ্রেণীর সকল স্তরের মানুষের সক্রিয় সহযোগিতায় ঐ রোঁয়াওঠা কদাকার কদমফুলমার্কা করোনা ভাইরাস হারবেই। বিজ্ঞান, সচেতনতা ও সহমর্মিতার আঘাতে আমরা পৃথিবী করোনা ভাইরাসমুক্ত করবোই। ব্যতিক্রমীরা কি নেই? অবশ্যই আছেন। আজ বরং তাঁদের ঋণাত্মক চিন্তা ভাবনার গণ্ডীবদ্ধতার পরিসরে তাঁরা নিজেরাই বন্দী থাকুন। তাঁদের কথা আজ আর ভেবে সময় বা মেজাজ... কোনোটাই নষ্ট করবো না। আজ শুধু ধনাত্মক ভাবনায় করোনা যুদ্ধের সকল সেনানীকে আমার আভূমি শ্রদ্ধাবনত প্রণাম জানাই।


Rate this content
Log in

More bengali story from Sanghamitra Roychowdhury

Similar bengali story from Abstract