Amit Ghosal

Comedy Inspirational Children


3  

Amit Ghosal

Comedy Inspirational Children


ফটিক চন্দ্র পাল

ফটিক চন্দ্র পাল

2 mins 220 2 mins 220


রোজের মতোই আজ সকালেও ফটিক চন্দ্র পাল,

হুড়মুড়িয়ে উঠলো বাসে, সিট্ পায়নি কাল৷

একটি ঘন্টা ঠায় দাঁড়িয়ে চরণ দুটি ঢিলে,

খানিক দেরী অফিস যেতে; বস চমকায় পিলে৷


তার উপরে শেষের বেলায় কাজ পড়লো মেলা, 

তাড়াতাড়ি ফেরার আশায় শুকনো ছাইয়ের ঢ্যালা৷

ফেরার পথেও ভীড় বাসেতে জীবন জেরবার ,

একটি হাতে ঝুলতে ঝুলতে একটি ঘন্টা পার৷


ক্ষুব্ধ রিক্ত চিত্তে ফটিক বাসের থেকে নামে,

এ জীবন আর রাখবেনা সে; যাবে অমৃত ধামে৷

ভীষণ চেগে তীরের বেগে বাজার পানে ধায়,

কোন দোকানে ফাঁসীর দড়ি কিনতে পাওয়া যায়! 


দোকানি বুড়ো শুধায় - বাবু কেমন দড়ি চাই?

ফটিক দেখে ফ্যালফেলিয়ে; বাক্যি বচন নাই |

কটমটিয়ে তাকায় বুড়ো - পাগল টাগল নাকি! 

ফুড়ুৎ করে পালায় ফটিক - অন্য দোকান দেখি৷


খানিক বসে ভাবলো শেষে গলায় দড়ি থাক,

ঠান্ডা মাথায় অন্য উপায় খুঁজে দেখা যাক৷

"ছোরা ছুরি, গোলা গুলি আমার কম্মো নয়,

ইঁদুর মারা সেঁকো বিষ একটু যদি হয়"! 


যেইনা ভাবা - নতুন জোশে ফটিক তেজিয়ান,

বিষের খোঁজে বিষয় ভুলে, বেগে ধাবমান |

চালাক চতুর ছোকরা বলে, কতখানি চাই? 

ইঁদুর, ছুঁচো, গেছো, মেঠো - কারুর ছাড়ান নাই৷


ঘাবড়ে গিয়ে ফটিক চন্দ্র ঘেমে একাকার,

বলে - আমার মতো একটি প্রাণীর যতটা দরকার!

যেইনা বলা!! লাফিয়ে ছোকরা ফটিকচাঁদের পাশে,

পাঁচটি আঙ্গুল সটান বসে তাহার গন্ড দেশে৷


এক চড়েতে ফটিক চাঁদের ছুটলো মরার নেশা,

নতুন সুরে, নতুন ভোরে, বাঁচার নতুন আশা৷

জাঁকিয়ে বসে, ভাবলো কষে, উপায় একটাই,

বাসে উঠে জানলা ধারের সিট্ টা আমার চাই !


যেই ভাবা সেই কাজ ফটিকের; দৃপ্ত শপথ নিলো,

সাত সকালে, সবার আগে, বাস স্ট্যান্ডে এলো |

তড়িঘড়ি ফটিক চন্দ্র বাসে সওয়ার হয়, 

লোকজন কম, ফটিক ভাবে - এতো মন্দ নয়!


ফুরফুরে মন, ভাবলো ফটিক, ভালই হলো এতে,

জানলা ঘেঁষে বসলো সেঁটে - খবর কাগজ হাতে৷

ফাঁকা বাসে দুলুনিতে ঘুম আসে দুই চোখে,

উঠলো ফটিক ধড়পড়িয়ে কন্ডাকটর এর ডাকে৷


বললো 'দাদা যাবেন কোথায় ঠাকুর পুকুর পার,

খানিক পরেই পৌঁছে যাবেন ডায়মন্ড হারবার'৷ 

শুনে ফটিক, দুঃখে রাগে, কেঁদে ফ্যালে প্রায়,

ভুল বাসে তে চড়ে এখন কি করি হায় হায় |


ভূত গ্রস্ত ফটিক চন্দ্র বাসের থেকে নামে,

উল্টো দিকের কোন বাসটা কখন এসে থামে!!

এলো সে বাস খানিক পরে, কোথাও ফাঁকা নাই,

ভীড়ের চাপে চ্যাপ্টা ফটিক - একটি পায়ে ঠাঁই৷


ফেরার পথে ফটিক ভাবে কোনো উপায় নাই,

আজকে আমার যে করে হোক ফাঁসির দড়ি চাই |

ভাবতে গিয়ে চড় খাওয়া সেই গালটা করে জ্বালা,

মরার ভাবনা মাথার থেকে এক্ষুনি তুই পালা৷


এই পৃথিবী অনেকটা সেই ভীড় বাস টার মত৷

ঠ্যালাঠেলি গুঁতোগুঁতি, তবু চড়ছে জীবন কত !!

তাইতো আজ খোশ মেজাজে ফটিক চন্দ্র পাল,

একটি পায়ে ঠায় দাড়িয়ে শিস দিয়ে গায় গান !!


পুনশ্চ: কবিতা এবং মূল চরিত্রের নাম শ্রী সত্যজিত রায়ের 'ফটিক চাঁদ' ছবিটি থেকে নেওয়া ৷


Rate this content
Log in

More bengali poem from Amit Ghosal

Similar bengali poem from Comedy