Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

AYAN DEY

Classics Inspirational


3  

AYAN DEY

Classics Inspirational


জেন্টস স্পেশাল

জেন্টস স্পেশাল

2 mins 955 2 mins 955

প্ল্যাটফর্ম দিয়ে অফিস ফেরতা ছেলেটা হেঁটে যাচ্ছে । জেন্টস স্পেশাল ট্রেনটা ছাড়ছে দুসপ্তাহ হলো । খুব সন্তর্পণে হাঁটছে । রাত ১০ টার শিয়ালদহ স্টেশন একটা পুরুষের পক্ষে কতখানি নিরাপদ সেটা ঠাউর করা ব​ড় মুশকিল । একদল মেয়ে মাঝেমধ্যেই নাচতে নাচতে ছেলে দেখলে ঘিরে ধরে । ফের তার জামাকাপ​ড় খোলার চেষ্টা করে , ছেলেটি যদি বুদ্ধি করে পালাতে পারে তো ঠিক আছে নইলে তার সাথে অত্যাচার শুরু হ​য় । এরকম বেশ কয়েকটা ঘটনা কোলকাতা জুড়ে শিয়ালদহ ছাড়াও আরও অনেক জায়গায় ঘটেছে গত কিছুদিনে ।

ট্রেন আসতে খানিক বাকি আছে সম​য় । প্ল্যাটফর্মের পাশে মুখে বাদাম চালান দিচ্ছে পলাশ । ট্রেনের আলো দেখা যাচ্ছে । সজাগ হলো পলাশ ।

হঠাৎ ছমছম করে নুপুরের শব্দ পেয়ে চমকে ওঠে পলাশ । বুকটা ঢিপঢিপ করতে শুরু করে । একটু ঘুরতেই দেখতে পায় ওদের । এদিক ওদিক কয়েকটা মুটে মজুর কুলিরা ঘুরছে কিন্তু ওদের দিকে নিশ্চ​য়ই ওই মেয়ের দল যাবে না ।

ট্রেন সামনে আসতেই যে কোনো কোচে উঠে পড়লো পলাশ । সিটে বসেছে কি মেয়েগুলো নুপুরের ছমছম আওয়াজ তুলে ট্রেনে উঠলো ।

" ক্যায়া বে চিকনা , জলদি ভি ক্যায়া ? "

" তোমরা কেন উঠেছো ? হেল্প হেল্প ... হেল্... উপপ । " মুখে হাত পড়তেই কথা আটকে গেলো পলাশের ।

" বিন্দি , চামেলী , জুলি আ ইধর ব্যাইঠ । রসিলা মাল হ্যায় , লুট লে চল । " 

ক্রমে ট্রেন চলতে শুরু করলো । ব্যাগের মধ্যে থেকে একটা করে বোতল বের করে মেয়েগুলো মুখে ঢেলে নিজেদের বেআব্রু করতে শুরু করলো ।

" একি করছো তোমরা ? " বলে উঠলো পলাশ ।

সকলে মিলে চলন্ত ট্রেনে পলাশের জামাকাপ​ড় ছিন্ন বিচ্ছিন্ন করে তার উপর চ​ড়াও হলো ।

" তারা বেহেন ব​ড়িয়া চুনি হো তুম । " বললো একটি মেয়ে ।

" তারা কি নজর বলতে হ্যায় ... মজা লে বিন্দি । "

বিদ্ধস্ত অবস্থায় খালি গায়ে পড়ে আছে পলাশ । ট্রেন থেকে মেয়েগুলো নেমে গেল একটা স্টেশনে । হাওয়ায় ছেঁড়া শার্টটা উড়ছে পলাশের ।

ফিউচুরা নিউজের অ্যাপ ভার্সানে খবরটা প​ড়ছিলো পলাশ । ১০০০ বছর পর পলাশের চেহারাটা কীরকম হবে , তার সাথে সমাজের কী পরিস্থিতি হবে তার বিস্তৃত বিবরণ পড়ে বুকটা ছ্যাঁৎ করে উঠলো । 

চাইনিজ টাইম মেশিন কোম্পানি এই ফিউচুরা অ্যাপের প্রস্তুতকারক । ভবিষ্যতের খবর বলে দেবে এমন ক্ষমতা রাখা যন্ত্রটির খোঁজ কদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পেয়েছে । অর্ডার দিয়ে আনিয়েছে । কিন্তু তাতে যা দেখলো তার পর থেকে দিনরাত ওই খবরটা মাথায় ঘুরছে । পরের এক সপ্তাহ ধরেও এই অভিজ্ঞতা ভুলতে পারলো না পলাশ । বাধ্য হয়ে ওই অ্যাপ আনইন্সটল করে দিলো ।


Rate this content
Log in

More bengali story from AYAN DEY

Similar bengali story from Classics