Participate in the 3rd Season of STORYMIRROR SCHOOLS WRITING COMPETITION - the BIGGEST Writing Competition in India for School Students & Teachers and win a 2N/3D holiday trip from Club Mahindra
Participate in the 3rd Season of STORYMIRROR SCHOOLS WRITING COMPETITION - the BIGGEST Writing Competition in India for School Students & Teachers and win a 2N/3D holiday trip from Club Mahindra

Sharmistha Mukherjee

Drama Tragedy Crime


4  

Sharmistha Mukherjee

Drama Tragedy Crime


কালো মেয়ের উপাখ্যান (অন্তিম)

কালো মেয়ের উপাখ্যান (অন্তিম)

6 mins 175 6 mins 175

যামিনী আর বিষ্ণুর দেহ নিয়ে চলে যাবার পর সবাই সেদিন রাতে কান্তা মৌসির ঘরেই থেকে গেল । আসলে মৌসি এখানে সবাইকে সন্তানের মতোই ভালোবাসে তাই যামিনীর মৃত্যুতে খুব ভেঙে পড়ে । সেদিন রাতে আর কারো চোখে ঘুম এলো না । সিতারা অবশ্য শ্যামার মাথার চুলে বিলি কাটতে কাটতে ঘুম পাড়িয়ে দেয় । নিশির চোখে তখনও নদীর নিস্তরঙ্গ স্রোত । এভাবেই কেটে যায় দিন সাতেক । দুপুরের গল্পের আসর আর বসে না , রাতের বেলায় খদ্দেরকে ফেরত পাঠানো হয় । কারো মুখে হাসির লেশ মাত্র নেই । দিন সাতেক এভাবে চলার পর একদিন মৌসি তার ঘরে সবাইকে ডেকে পাঠায় । অনিচ্ছা সত্ত্বেও সবাই গিয়ে উপস্থিত হয় মৌসির ঘরে । মৌসি সবাইকে বললো , " শুন বিটিয়া মুঝে আচ্ছি তহরাসে পাতা হ্যায় কে তুমলোগ অভিভি উস গমসে উভর নেহি পায়ে লেকিন ফিরভি কাম তো করনি পড়েগি । নেহীতো পেট ক্যায়সে চলেগি । উপরসে শ্যামা বিটিয়া রানী হ্যায় উসকা দেখভাল তো হাম সভিকো করনি পড়েগি কে নেহী! উসকো বড়াভিতো করনি হোগী । হা অউর এক বাত হ্যায় , বো ম্যায় সোচ রহীথি শ্যামাকো স্কুল ভেজুঙ্গি পড়নে কে লিয়ে । যিতনি দূর তক শ্যামা পড়না চাহে পড়াউঙ্গি । ম্যায় নেহি চাহতি শ্যামা কভিভি ইস ধান্দেমে আয়ে । অউর উসকে লিয়ে হাম সভিকো মহেনত করকে পয়সা জমা করনি হোগী । " মৌসির কথা শেষ না হতেই সবাই আচমকা এক ছুটে এসে মৌসিকে জরিয়ে ধরে । সেদিনের পর থেকে আবার সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে যায় । দিনের আড্ডা , রাতের ধান্দা সবকিছু শুরু হয় আগের

 মতো । মনের কোণে চাপা কষ্টগুলো যেন জোর করে মনের গোপন কুঠুরিতে বন্ধ করে রেখেছিল সবাই শুধুমাত্র শ্যামাকে সত্যিকারের মানুষের মতো মানুষ করতে । 


অনেক দিন পর আবার গল্পের আসর বসলো নিশির ঘরে । হয়তো সেই আগের খুশির জোয়ারে একটু ভাঁটা পড়েছে তবুও সামান্য খুশি থাকার আপ্রাণ চেষ্টায় ব্যস্ত সকলেই । নানারকম কথা হচ্ছে তার মধ্যে হঠাৎ করেই কৃষ্ণা বলে উঠলো , " আমরা কিন্তু সবার জীবনের কথাই শুনেছি শুধু সিতারার গল্প শোনা হয় নি " । সাথে সাথেই সবাই আবদার জুড়ে দিলো , " সবাই সমস্বরে বলতে শুরু করলো , " বল না সিতারা তোর গল্প , তুই এখানে কি করে এলি ?" লায়লা বললো, " আর তোকে মৌসি এতো ভালোবাসে কেনো ? তুই কি এখানে প্রথম এসেছিলি ? কি হয়েছিল তোর সাথে ? "

সবার বায়নায় একেবারে নাজেহাল হয়ে গেল সিতারা । তারপর বললো , " আমি জানি না । আমি কিছু বলতে পারবো না । " সবার অনেক পীড়াপীড়ি স্বত্বেও কিছুতেই মুখ খুলতে নারাজ । শুধুমাত্র মুখ খুলতে বাধ্য হোলো নিশির কথায় । 


সিতারা এবার মুখ খুললো । 


সিতারা এবার নিজের কাহিনী বলতে শুরু করলো । 

সিতারা : " মেরি কাহানী সির্ফ মেরি খুদকি কাহানী নেহী হ্যায় । কিসি অউর কি কাহানী পহেলে শুননি পড়েগি । "


সবাই সিতারার কথা শুনে অবাক হয়ে যায় । কৃষ্ণা বলে, " অন্যের গল্প ? অন্যের মানে কার গল্প ? "


সিতারা বললো , " বীচমে মত্ বোল ? সব শুনেগি তো সমঝ যায়েগী । "

সিতারার ধমক খেয়েই সবাই চুপ করে গেল । 

সিতারা আবার বলতে শুরু করলো । 


সিতারা : মেরি জনম ইসি কোঠেমে হুয়ি থি । মেরি মা শাদীসে পহেলে পেট সে থি । যো শাদী করনেওয়ালা থা মতলব মা জিসসে প্যায়ার করতি থি উনসে মাকো ছোড়কে দুসরা শাদী কিয়া অউর মেরি মাকো ছোড় দিয়া জামানের ভরকি গাঁলিয়া শুননে কে লিয়ে । একদিন শরমসে মেরি মা কিসি নদীমে কুদ গ্যায়িথি জান দেনেকে লিয়ে । উসি নদীমে এক নাওমে থি গুলাবি বাঈ , উনহোনে মাকো দেখতেহি নাও মে উঠাকে উনকি সাথ লে গ্যায়ি । হাসপাতালমে দাখিলা করনেকে বাদ ডাক্তার নে মাকি যাচ করকে গুলাবি বাঈকো বাতায়া কে মা পেটসে হ্যায় , লেকিন বহত কমজোর হ্যায় । দোদিন বাদ আপ উনকো লেকে যা সকতি হ্যায় । অভি উনকি আচ্ছি ত্যাহেরাসে দেখভাল কি জরুরত হ্যায় । " 

দোদিন বাদ গুলাবি বাঈনে মেরি মা কো ইয়াহা লে আয়ি । মা সে সবকুছ শুননে কে বাদ উনহোনে মাকো বেটি মান লিয়া । গুলাবি বাঈ বান গ্যায়ি মঞ্জরী দত্ত কি মা । 

উনহোনে মা কি নয়া নাম দিয়া কান্তা বাই । "


এই কথা শুনেই নিমেষের মধ্যে সবাই রীতিমতো লাফ দিয়ে ওঠে , এমনকি নিশিও । 


সিতারা : " ক্যায়া হুয়া ? কোয়ি ভূত নেহি হু ম্যায় ? ম্যায় হু সিতারা বাঈ , কান্তা বাঈ কি বেটি অউর গুলাবি বাঈকি নওয়াজি । তুমলোগ জিসকো বলতেহো নাতনি । তো জাহিরসি বাত হ্যায় মেরি মা ইয়ানিকি তুমলোগোকি কান্তা মৌসি মেরি মা হ্যায় তো মুঝসে সবসে জাদা প্যায়ার করেগি অউর মেরি বাত ভি শুনেগি । ইয়াহা প্যায়দা হুয়ি ইসলিয়ে ইয়াহা হু । অউর হাঁ মা কে বাদ ইয়াহা কি মালকিন ম্যায় হু । নানীমা গুলাবি বাঈ নে মা কান্তা বাঈকো গদ্দিমে বিঠায়া অউর মেরি মা মুঝে বিঠায়েগি । "


সবাই চুপ করে শুনছিল । হঠাৎ নিশি বললো , " সিতারা তুই এখানে জন্মেছিস বলে এই পেশাই বেছে নিলি কেন ? পড়াশোনা করে অন্য কিছু......... " 

সিতারা নিশির কথা শেষ হওয়ার আগেই কথা বলতে শুরু করে , " কিসনে বোলা ম্যায়নে পড়হাই নেহি কিয়া ? ম্যায় এয়সি রহেতি হু ইসকা মতলব ইয়ে নেহি কে ম্যায় পড়ালিখ্খা নেহি হু । শ্যামাকো দেখনে আয়িথি যো ডক্টর পামেলা বোস ইয়াদ হ্যায় ? " 

সবাই মিলে একসাথে উত্তর দিলো, " হ্যাঁ হ্যাঁ মনে আছে । "

সিতারা বলে চললো , " পামেলা অউর ম্যায় একসাথ পড়তিথি । বহত আচ্ছি হ্যায় , উসকি মা - বাবা মুঝসে বহত প্যায়ার করতি থি । ম্যায় কৌন হু , কিসকি বেটি হু , কাহা রহেতি হু উন লোগোকো সবকুছ মালুম থা । ফিরভি উন লোগোনে মুঝে আপনি বেটিকি ত্যাহেরা আপনায়া , প্যায়ার দিয়া । পামেলা কি বাবা কোলকাত্তাকে নামজাদা দিল কা ডক্টর থা । উনহোনে সিফারিশ করকে পামেলা কি সাথ মেরি ভি দাখিলা কর দিয়া মেডিকেল কি পড়হাইমে । মেডিকেল কি পড়হাই কর রহিথি তব এক ডক্টরকে সাথ মেরি প্যায়ার হুয়া । এক সাল তক প্যায়ার কে সাথ সাথ শারীরিক সমবন্ধ ভী হুয়া থা । যব ম্যায়নে শাদীকি বাত ছেড়ি তব উসনে বোলা , " তুমসে শাদী ? তুম যিস ঘরসে হো উস ঘরকে লড়কিয়া শাদী করনেকে লিয়ে নেহি সির্ফ বিস্তরমে আচ্ছে লগতে হ্যায় । " উসকে বাদ পাতা নেহি ক্যায়া হুয়া একদিন মেডিকেল কলেজ গ্যায়ি তব পুরা কলেজমে মেরি হারতরহাকা নঙ্গি তসবির লাগা হুয়া

 থা । ব্যাস উসি দিনসে মেরি মেডিকেল কি

পড়হাই ছুট গ্যায়ি । মুঝে কলেজসে নিকাল দিয়া গ্যায়া । ম্যায়নে ঘর আকে মাকো সবকুছ বাতায়া , আপনি জান দেনেকি কৌসিস কি । লেকিন জান বাচ গ্যায়ি , উসি দিনসে ম্যায়নে ফ্যায়সলা কর লিয়া ম্যায় ইয়েহি ধান্দা করুঙ্গি । পামেলা মেডিকেল মে পাস হোকে ডক্টর বান গ্যায়ি । উসসে দোস্তি তবভি থা, আজভি হ্যায় । ইসলিয়ে ইয়াহা যোভি দিক্কত হোতি হ্যায় বো আকে উসকা ইলাজ করতি হ্যায় । উপরসে এক প্যায়সা

নেহি লেতি । ব্যাস ইয়েহি হ্যায় মেরি

 কাহানী । "


সিতারার কথা শেষ হতেই আবার পুরো ঘরে পিন পতন নিস্তব্ধতা ছেয়ে গেল । প্রায় আধ ঘন্টা কারো মুখে কোনো কথা নেই । হঠাৎ ঘরের নিস্তব্ধতা ভেঙে কথা বলে উঠলো

 নিশি । নিশি বললো , " তাহলে শ্যামাকে আমরা পড়াবো কি করে ? বড়ো হলে ওকেও এই বদনাম নিয়েই বাঁচতে হবে । "

সিতারা বললো , " না পামেলার সাথে কথা হয়েছে । পামেলা নিজের পরিচয় দিয়ে শ্যামাকে দত্তক নেবে । তারপর শ্যামাকে অনেক দূরে কোনো বোর্ডিং স্কুলে রেখে পড়াশোনা করাবে । আমি ওকে অনেক অনুরোধ করেছি শ্যামার খরচ আমরা সবাই মিলে দেব প্রথমে রাজি হয়নি পরে বললো কিছু খরচ ও নিজে দেবে আর কিছুটা আমরা । আমি তাতে রাজি হয়ে গেলাম । "


নিশি বললো , " যাক বাবা শুনে খুব শান্তি পেলাম জানিস । ভালো কথা তুইতো খুব ভালো বাংলা বলতে পারিস ! সেটাতো জানতাম না । "


সিতারা বললো , " নিশি ভুলে যাস না আমার মা বাঙালি । তারপর আমি পুরো বাংলা মিডিয়াম স্কুলে পড়াশোনা করেছি । আমি হিন্দিতে কথা বলি কারণ আমার বেশ ভালো লাগে তাই । " বলেই হো হো করে হেসে উঠলো । সিতারার সাথে সাথে সবাই হেসে উঠলো । 


তারপর প্রায় এক সপ্তাহ পর পামেলা কোর্টের আপিল করে শ্যামাকে নিজের মেয়ে হিসেবে দত্তক নেয় । দত্তক নেওয়ার মাসখানেক পর পামেলা দার্জিলিংয়ের একটি কনভেন্ট স্কুলে শ্যামাকে ভর্তি করিয়ে দেয় । সেখানেই শুরু হয় শ্যামার নতুন পরিচয়ে নতুন জীবন । 


     যবনিকা পতন




Rate this content
Log in

More bengali story from Sharmistha Mukherjee

Similar bengali story from Drama