RIJU PAUL

Tragedy Thriller


3  

RIJU PAUL

Tragedy Thriller


প্রবাহ

প্রবাহ

3 mins 259 3 mins 259

২১.০১.১৮~


সকাল ছটায় উঠেছি। আর যেই বিট্রে করুক না কেন অ্যালার্ম ঘড়িটা কখনোই করেনি। বাপি গতকালই নতুন জগিং শু কিনে দিয়েছে, ফিট হয়েছে বেশ। দুটো রাউন্ড জাস্ট মেরেছি । যথারীতি আজকেও লেট করেছে ও। পনেরো মিনিট মত কথা বলেই ছুটেছি বাড়ির দিকে । ফার্স্ট ডেতেই অফিস লেট করতে চাই নি। নতুন অফিস খুব ভালো, পরে লিখবো সেসব নিয়ে। গুডনাইট এখানকার মত।


২২.০১.১৮~


ফেসবুক ডিপিটা ভীষণ ভীষণ পছন্দের আমার। দুজন একসাথে। ও খুব ফটোজেনিক, আমার তো একটা সেলফিও ভালো আসেনা। এই ছবিটা গতকাল অফিস থেকে ফেরার সময় পার্কস্ট্রিটে তুলেছি। ইনবক্সে যথারীতি কৌতূহলের ভিড় জমছে। জমুক গে, কাল বরং ছবিটা ল্যামিনেশন করিয়ে নেবো। 


২৩.০১.১৮~


অফিস ছুটি ছিলো আজ। আমরা এখন পুনেতে। বাড়িতে বলে এসেছি অফিস ট্রিপ, সত্যি বললে অনেক প্রশ্ন উঠতো।খুব খুব খুশি আমি। অনেক ঘুরেছি, প্রচুর শপিং করেছি, প্রচুর ছবি তুলেছি। এখন যাই, ও ছাদে অপেক্ষা করছে। কি সুন্দর চাঁদ উঠেছে।


২৬.০১.১৮~


ট্রিপ থেকে ফেরার পর থেকেই কিরকম একটা অস্বস্তি হচ্ছে আমার। ভালো লাগছে না একদমই। ওকে বলেছি, হেসে উড়িয়ে দিয়েছে। একটা আশঙ্কা মনের মধ্যে দানা বাঁধছে যেন। থাক, ভেবে লাভ নেই।


২৭.০১.১৮~


কাল রাত দুটো থেকে ওর ফোন এনগেজড ছিলো, টানা একঘন্টা। কার সাথে কথা বলছিলো? জিজ্ঞেস করবো? হ্যাঁ, করা উচিত তো, এতরাতে কে ফোন করেছিলো? আর এতক্ষণ ধরেই বা কি কথা হতে পারে! হোয়াটস অ্যাপে পিং করলাম। নীল টিক পড়লো। রিপ্লাই এলো না। 


৩১.০১.১৮~


গত কয়েকদিনে অনেক কিছু পাল্টে গেছে। এলোমেলো হয়ে গেছে সব, আমার এই ডায়েরির মতই অগোছালো। ও এড়িয়ে যাচ্ছে ক্রমশ। ফোন করলে ধরছে না, কখনো রিং হয়ে হয়ে কেটে যাচ্ছে তো কখনো ব্যস্ততার দোহাই দিচ্ছে। ম্যাসেজ আসাও বন্ধ প্রায়। হঠাৎ কি এমন হলো? জানা দরকার আমার ...ভীষণরকম ভাবে জানা দরকার।


০২.০২.১৮~


ওর বাড়ি গেছিলাম আজ। কাকিমা ভেতরে আসতে বললো না। দরজায় দাঁড়িয়েই বললো ও বাড়ি নেই, কখন ফিরবে জানে না। মিথ্যে বললো কেন কাকিমা? ব্যালকনির পর্দার আড়ালে ও যে দেখছিলো, সেটা আমি খেয়াল করেছি।


 কি করেছি আমি? এরকম ব্যবহার কেন করছে ওরা !


০৪.০২.১৮~


ব্লক করে দিয়েছে ও আমায় ফেসবুক আর হোয়াটস অ্যাপে। ফোন সুইচড অফ বলছে। তাহলে রক্তিমরা যেটা বলছে সেটাই কি ঠিক ....তিনবছরের সম্পর্ক এভাবে ..ও কি বুঝতে পারছে না, আমার কতটা ক্ষতি হতে যাচ্ছে। কি করবো এখন আমি?


১০.০২.১৮ ~


আজ ওর বিয়ে ...হ্যাঁ বিশ্বাস করতে কষ্ট হলেও এটাই সত্যি। কিছু উপহার দেওয়া হয়তো উচিত, যদিও নিমন্ত্রণ পাইনি। দেওয়ার মত কিছুই তো বাকি নেই, সর্বস্ব তো আগেই দিয়ে ফেলেছি। ঠাকুর যেন ভালো রাখে ওকে, কোন শাস্তি যেন না দেয়।


বড্ড ভালোবাসি তো এখনো, তাই হয়তো এই ভুলটুকুও হজম করে নিলাম। ইঁটের টুকরো দিয়ে আঁকা রামধনুরঙা সস্তার ইতিহাসের দুটো পাতা ছিঁড়ে গেলে, কারই বা কি এসে যায় ..কাল সব আগের মতই চলবে ...সময়ের কাঁটাও থমকে যাবে না।


বড্ড ঘুম পাচ্ছে ..তুমিও ঘুমাও ডায়েরি ..এখন থেকে ....বরাবর।


" কি বুঝলেন ইন্সপেক্টর বক্সি, হুমম "?

-"একটা ফোন তো করাই যায়, নম্বর তো আছেই "।

"আর ইউ শিওর? "

-"ঠিক ভুল জানি না, মন বলছে এটা জানানো দরকার, আমি কথা বলবো, আপনি ডায়াল করুন। "


" হ্যালো, মিসেস প্রিয়াঙ্কা সুরেশ বাসু কথা বলছেন? নমস্কার, পার্কস্ট্রিট থানা থেকে ইন্সপেক্টর বক্সি বলছি, গল্ফগ্রিনে কাল রাতে মোনালি দত্ত নামের একজন সুইসাইড করেছেন, আমরা একটা ডায়েরি পেয়েছি ওর ফ্ল্যাট থেকে, আপনার নম্বরটা ওখান থেকেই ...হ্যালো মিসেস বাসু ..হ্যালো ...হ্যালো"।।


Rate this content
Log in

More bengali story from RIJU PAUL

Similar bengali story from Tragedy