Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

শেষ চুমু

শেষ চুমু

2 mins 562 2 mins 562

আদরটা শেষ হয়ে যাবে এতো তাড়াতাড়ি ভাবতে পারেনি ইতালীয় ওই দম্পতি । বুকে ছিলো তাদের দ্য ভিঞ্চিয় প্রেম । কিন্তু করোনার বোল্ড লেটার যে ইতালিকসকে এত সহজে নুইয়ে দেবে তা কে জানতো ?

লরেঞ্জো লুসিয়ার প্রেমে পড়েছিলো মেডিক্যাল কলেজে পড়াকালীন । মিলানের মেয়ে লুসিয়া লিখতো অসাধারণ কবিতা । লুসিয়া আঁকতে ভালোবাসতো । শবচ্ছেদ করতে করতে গা গুলিয়ে একদিন লুসিয়া বাথরুম এগোয় ।

বেরোনোর পর প্যাসেজে বসে থাকা লরেঞ্জোকে দেখলো লুসিয়া । একটা এ ফোর কাগজে একটা ছবি আঁকছে । ভালো করে দেখতে দেখতে লুসিয়া বোঝে ছবিটা মিলানের ওই ইউনিভার্সিটিরই ছবি ।

" ওয়াও লরেঞ্জো , ওয়াট এ বিউটিফুল স্কেচ ! ইউ হ্যাভ ব্রট আওয়ার ইউনিভার্সিটি টু লাইফ ইন ইওর স্কেচ । " 

" ও লুসিয়া ! নো নো আ টাইমপাস ওনলি । ডোনট হ্যাভ এ ক্লাস নাও হেন্স ... বাট ইউ হিয়ার ... ? "

" ও লরেঞ্জো ! ওয়াট এ পিকিউলিয়ার এক্সপিরিয়েন্স ইট ওয়াজ টু টেস্ট আ কর্পস ! ইউ হ্যাভ ক্রসড দিস লাইনস বাট ইটস ওনলি দি স্টার্ট ফর মি ! "

" মি টু ওয়াজ টু মাচ ফ্রাইটেন্ড টু টেস্ট দ্য সেম । ইউ উইল বি স্লোলি অ্যাকাস্টমড টু ইট । "

ব্যস ওই শুরু । ক্রমে অন্তিম বর্ষের এম্.বি.বি.এস স্টুডেন্ট লরেঞ্জো ও লুসিয়ার প্রেম এগোতে থাকে । উচ্চশিক্ষায় থাকাকালীন একদা দুজনের চার্চসম্মত বিবাহ সম্পন্ন হলো ।

লুসিয়া পিডিয়াট্রিশান হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে । আর পালমোনোলজিস্ট হিসেবে খ্যাতি বেড়েছে লরেঞ্জোর ।

২০২০ সাল ১০ই মার্চ :

একের পর এক করোনা রোগী আসতে চলেছে নার্সিংহোমে । হিমসিম খেয়ে যাচ্ছেন মিলানের এই প্রসিদ্ধ নার্সিংহোমে । থার্ড স্টেজ এসে গেছে , লোকে শোনেনি সতর্কবাণী ।

আই.সি.ইউয়ের এপার ওপার মুখ চাওয়াচাওয়ি করলো এক দুবার লরেঞ্জো ও লুসিয়া । ফের লেগে পড়লো সেবায় ।

১৬ ই মার্চ :

যমরাজ রুদ্ধশ্বাসে তাঁর রথ নিয়ে এগিয়ে চলেছেন ইতালি জুড়ে । হাজারে হাজারে মারা যাচ্ছে লোক ।

থার্ড স্টেজের মারণকোপ ভ​য়ঙ্কর হবে অনেক বিশেষজ্ঞ সাবধান করেছিলেন কিন্তু শোনেনি কেউ ।

১৮ ই মার্চ :

সেবা করাকালীন লুসিয়া একনাগাড়ে কাশতে লাগলেন । অসম্ভব জ্বরে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে গেলেন । লরেঞ্জো দ্রুত সেদিকে গিয়ে লুসিয়াকে এমার্জেন্সীতে নিয়ে যায় । ধরা পরে করোনা । ওই রাত্রি থেকেই নিঃশ্বাসের কষ্ট ও জ্বরে পড়লো লরেঞ্জো । দুটোদিন চিকিৎসায় ছিলো । 

এদিকে গণকবর খোঁড়া শুরু হয়েছে । জানলা , বারান্দা থেকে হাত বাড়িয়ে কাঁদছেন মা , বউ , বাচ্চা ।

২০ শে মার্চ :

জীবনের দিক দিয়ে যখন আশা বলতে কিছু বাকি নেই তখন লরেঞ্জো ধুঁকতে ধুঁকতে বিছানা থেকে উঠে লুসিয়াকে টেনে তুললো । গোটা হল ভর্তি করোনা আক্রান্ত । মাস্ক খুলে একে অপরের ঠোঁট স্পর্শ করলো লুসিয়া ও লরেঞ্জো । জড়িয়ে ধরলো শক্ত করে । ঘর জুড়ে হাততালি । পাঁচ মিনিট পর সব স্তব্ধ । দুজনে ঘরের মধ্যেই লুটিয়ে পড়লো ।

আর ১ টি ঘন্টা কাতরাতে কাতরাতে , হাতে হাত রেখে পাশাপাশি বিছানায় গণকবরে যেতে প্রস্তুত হলো দুই করোনা আক্রান্ত ।


Rate this content
Log in

More bengali story from AYAN DEY

Similar bengali story from Romance