Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Unknown Phantom

Abstract


1.6  

Unknown Phantom

Abstract


স্বার্থপর

স্বার্থপর

3 mins 918 3 mins 918

এটা ২০১৯, পৃথিবীও যে আজ স্বার্থ ছাড়া ঘোরে না, এ কথা আশা করি আজ অনেকেই বিশ্বাস করেন। আপনারা নিজেদের রোজকার জীবনে নিশ্চয়ই অনেক স্বার্থপরদের দেখেছেন, তবে আজ আমি এক বিশেষ ধরনের স্বার্থপরদের কথা বলব, এদের আপনারা প্রায় প্রতিদিনই দেখেন, কিন্তু আসল চেহারাটা আপনারা হয়ত বুঝতে পারেন না বা হয়ত ধরতে পারেন না। কিংবা এটা নিছক আমার মনের ভুল, তা আপনারাই শেষে বিচার করবেন......


এই ধরনের স্বার্থপরদের ওপর অনেক আগেই অজান্তেই একটা আদমশুমারি (census) হয়ে গেছে, এবং তার ফলাফল হল কেবল ভারতেই এদের সংখ্যা তেত্রিশ কোটির কাছাকাছি, তবে মজার ব্যাপার হলো পৃথিবীতে এদের সংখ্যা সারাজীবন ধ্রুবক (constant) থাকে, কোনো বছর বাড়েও না আবার কোনো বছর কমেও না, কি করে? সেটা এখনো রহস্য, হয়ত এই স্বার্থপরদের ওপর ভগবানের বিশেষ কোনো আশীর্বাদ আছে। আরো কতগুলো মজার ব্যাপার বলি এদের সম্পর্কে, শুনুন। আমি যেমনটা আগেও বলেছি এদের আপনারা রোজ দেখতে পান, কিন্তু এদের আসল বাড়ী কোথায় সেটা আপনারা কোনোদিন জানতে পারবেন না, কারণ এদের অগাধ সম্পত্তি, অগুন্তি বাড়ি, তাই কোনটাতে এরা থাকে সেটা আপনি ধরতে পারবেন না। তবে কয়েকটা বাড়িতে নাকি এরা প্রতিদিন থাকে বলে শোনা যায়। আর একটা বিষয় শুনলে অবাক হবেন, এদের যে এত সম্পত্তি তার কোনটাতেই কোনো tax লাগে না, সরকারও এদের তোয়াজ করে, অথচ আমাদের ছোটোখাটো বিষয়েও tax দিতে হয়। শুধু সরকার কেন পৃথিবীর প্রায় ৯৯.৯৯ শতাংশ লোক এদের তোয়াজ করে চলে, এই একটা কাজ পৃথিবীর সকল ধর্মের সকল বর্ণের মানুষ ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে করে। তাও বড়লোকেদের কাছে এরা বেশী সহজলভ্য এবং ওদের প্রতি একটু বেশি স্নেহপ্রবণ, আরে বাবা যতই হোক টাকাতেই দুনিয়া চলে।

এরা কোনোদিন কোনো কাজ করে না তাসত্ত্বেও এদের জীবনে সুখ শান্তি আড়ম্বরের কোনো দিন কোনো অভাব হয় না, আর এই সকল কিছুর জন্য এদের অর্থ জোগায় সমাজের সব স্তরের মানুষ অর্থাৎ ভিখারী থেকে আম্বানি। সরকার যেহেতু এদের কোনো সম্পত্তির উপর tax বসায় না, তাই অনেকে এদের মুক্তহস্তে black money দান করে আর এরাও সেটা মুক্তহস্তে গ্রহণ করে। অনেক মানুষ বিনামূল্যে এদের সেবা করে। অবশ্য বিনামূল্যে বলা ভুল, সাধারন মানুষ এই স্বার্থপরদের যা দেয় তার কিছু অংশ এরাও পায়, আবার black money এর বেশ কিছু অংশ এরা হাত সাফাই করে নেয়। তবে মানুষও এমনি এমনি ওদের এত তোয়াজ করে না, ওরা কোনো ভাবে সাধারণ মানুষদের বোঝাতে পেরেছে যে পৃথিবীতে ঘটা সব কিছুই এদের ক্ষমতাধীন, পৃথিবীতে যা ঘটে সব নাকি এদের ইশারাতেই হয়, তাই মানুষও কোনো কিছুর পাওয়ার লোভে এদের পিছনে এত তোয়াজ করে, কয়েক জন তো এদের আবার পার্টি দেয়, অনেক সময় ওই পার্টি কয়েকদিন ধরে চলে, বলতে বাধা নেই, হিন্দু ধর্মের লোকেরাই বেশি পার্টি দেয় এদের।

বেশ কয়েক লক্ষ কোটি মানুষ এদের নাম করে ব্যবসা চালায়, উপার্জনও করে প্ৰচুর। সাধারণ মানুষ এদের এত সেবা করে (যদিও স্বার্থ ছাড়া নয়) তাও এরা নিজেদের ছাড়া অন্য কারোর কথা ভাবে না। এরা কোনো দিন সামনাসামনি কথা বলে না, এরা telepathy এর মাধ্যমে কথা বলে, তাও আবার রাতে, দিনে সকলের সামনে নয়। এদের এত সম্পত্তি থাকা সত্ত্বেও এরা কেবল বলে আমায় ওমুক জায়গায় একটা বাড়ি করে দাও, ওমুক গয়না দাও, অমুক খেতে দাও ইত্যাদি। আজ অবধি কোনোদিন এটা এরা বলিনি যে, আমার ওমুক জায়গায় বাড়ি করতে যে খরচা পর্বে সেই টাকা কোনো বৃদ্ধাশ্রমে দাও, কি কোনো অনাথাশ্রমে দাও, কি ঐ টাকায় কোনো গরিব বাচ্চার পড়াশোনার খরচ দাও; কোনোদিন এই গুলো বলেনি এরা, শুধু বলেছে আমায় এটা দাও আর ওটা দাও; অথচ পৃথিবীর সব কিছুর বিবরণ নাকি এদের হাতের মুঠোয়। কিন্তু কথায় আছে এরা নাকি যা করেন সকলের মঙ্গলের জন্যই করেন। মানুষও তাদের চোখের মণি করে রাখে। বাস্তবে এরা গরীবকে আরো গরীব হতে আর ধনীকে আরও ধনী হতে সাহায্য করে।


কি বুঝতে পারলেন এরা কারা ?

কি মনে হচ্ছে, আমি যে এদের স্বার্থপর বললাম, সেটা ঠিক কি না......?


Rate this content
Log in

More bengali story from Unknown Phantom

Similar bengali story from Abstract