Pritam Mukherjee

Crime Thriller Others


3  

Pritam Mukherjee

Crime Thriller Others


রহস্য ও সত্ত্বানেষী

রহস্য ও সত্ত্বানেষী

4 mins 4 4 mins 4


            পর্ব -তিন 

      

           খুনির সন্ধানে। 


দরজা দিয়ে ভেতরে ঢুকতে দেখতে পেলাম বাড়িতে পুলিশের ছড়াছড়ি। বিভিন্ন তদন্ত বিভাগের লোকেরা এসে হাজির হয়েছে এখানে। দারোগা পেছন থেকে এসে বললেন চলুন রুদ্রনীল বাবু লাশ টা দোতালায় শোবার ঘরে আছে। আমরা দারোগা বাবুর সাথে দোতালায় গিয়ে পৌঁছলাম। বিশাল বড়ো শোবার ঘর আর ঘরের চারিদিকে নানা ধরণের মুর্তি। কি অপুর্ব সেই সব মুর্তি যেন শিল্পী নিজের সমস্ত শিল্প ঢেলে দিয়েছে সেই সমস্ত ভাস্কর্যে। আমি মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে থাকলাম সেই সব ভাস্কর্যের দিকে। কি কারণে এখানে এসেছিলাম তাই ভুলে গেছিলাম। রুদ্রনীল বাবু হঠাৎ আমার কাঁধে হাত রেখে বললেন কি হে সাগরেদ এই পৃথিবীতে না মঙ্গল গ্রহে? আমি কিঞ্চিৎ লজ্জা বোধ করে বললাম রুদ্রনীল বাবু এতো সুন্দর ভাস্কর্য আগে দেখিনি। 


আমিও এমন খুন আগে দেখিনি এই বলে রুদ্রনীল বাবু নিজের দাঁত দিয়ে নখ চেবাতে লাগলেন। আমি লাশ টার দিকে তাকালাম। চোখ দুটো খোলা ঠিক যেনো বেরিয়ে আসছে ভেতর থেকে, যেনো নিজের মৃত্যু বিভীষিকা নিজের চোখে দেখছে সে। গলাটা বিচ্ছিরি ভাবে কাটা। বিছানার সাদা চাদর লাল রক্তে ভিজে গেছে।  রুদ্রনীল বাবু দারোগা কে ডেকে বললেন মালতি দেবী হয়তো বুঝতে পেরেছিলেন যে কেউ ওনাকে খুন করতে চাই। কিন্তু পরশুদিন বিশেষ কিছু না বলেই চলে গেছিলেন। দারোগা বললেন ওটাই তো বুঝতে পারছিনা খুন টা কে করতে পারে। ব্যাপারটা বেশ জটিল। আপনি সাহায্যে আছেন মানে খুনি ঠিক ধরা পরবে। 

রুদ্রনীল বাবু হেসে দারোগা সাহেব কে বললেন, যদি আমরা ধরে নি খুনি আমাদের চেও বেশি চালাক তবে তদন্ত আরো বেশি নিখুঁত হবে, তাই নয় কি? 

দারোগা হেসে বললেন যা বলেছেন রুদ্রনীল বাবু। 


এই বাড়িতে আর কে কে থাকে? রুদ্রনীল বাবু জিজ্ঞাসা করলেন। দারোগা বললেন এই বাড়িতে মালতি দেবী আর ওনার দুই চাকর মানে চাকর ভোম্বল আর তার স্ত্রী। ওনার সৎ ছেলে বিবেক বসু, রুদ্রনীল বাবু অবাক হয়ে দারোগাকে থামিয়ে বললেন সৎ ছেলে? দারোগা বললেন হ্যাঁ মালতি দেবী তো বসু বাবুর দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী, প্রথম স্ত্রীর পুত্র এই বিবেক বসু। বাবার কোম্পানিতে চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার। নিজের স্ত্রী আর বাচ্চা নিয়ে নিউটাউন এ একটা ডুপ্লেক্স ফ্লাট নিয়ে থাকে। অবশ্য নিজের সম্পত্তি। মালতি দেবীর সাথে ওনার ছেলের মানে বিবেক বাবুর সম্পর্ক ভালো ছিলোনা। তাই আলাদা থাকে। 

রুদ্রনীল বাবু জিজ্ঞাসা করলেন মালতি দেবীর খুনের খবর দেওয়া হয়েছে ওনাকে? দারোগা বললেন অনেক্ষন কিন্তু এখনো এসে উপস্থিত হয়নি। 

রুদ্রনীল বাবু বললেন ফোনে ধরুন তো ওনাকে। 


দারোগা এক সেপাই কে ডেকে বললেন ফোন করো বিবেক বসুকে জিজ্ঞেস করো নিজে আসবেন না নিয়ে আসতে হবে আরতি করে। সেপাই আচ্ছা বলে চলে গেলো, এসে বললো সাহেব ফোন করেছিলাম বললো রাস্তায় আছে এখনি এসে পৌঁছবে। দারোগা বললেন 

আচ্ছা তুমি যাও। সেপাই চলে গেলে রুদ্রনীল বাবু বললেন আসুক জিজ্ঞেস করে দেখি কি বলে। 


দারোগা বললেন আপনি কি তবে বিবেক বসুকে সন্দেহ করছেন? রুদ্রনীল বাবু বললেন যতক্ষণ না খুনি ধরা পড়ছে আমি যে কাকে সন্দেহ করছি সেটা আমি বলতে পারবোনা। দারোগা বললেন আচ্ছা বেশ তা আপনার এই নিয়মটা অতিক্রম করে শান্তি পাবোনা এই বলে দারোগা আর সত্ত্বানেশী দুজনেই হেসে উঠলেন। সেপাই এসে খবর দিলো সাহেব বিবেক বাবু এসেছেন। দারোগা জিজ্ঞেস করলেন কোথায় উনি? 


সেপাই বললো পাশের বসার ঘরে বসিয়ে রেখেছি পাঠিয়ে দেবো? রুদ্রনীল বাবু বললেন না। আমরা যাবো পাশের ঘরে। দারোগা সেপাই কে বললেন দেখো পাশের ঘরে কেউ আর যেনো না ঢোকে। আজ্ঞে হুজুর বলে সেপাই চলে গেলো। 

এসো অনিমেষ বলে রুদ্রনীল বাবু ডাকলেন আমায়। দারোগার সাথে রুদ্রনীল বাবু আর আমি পাশের ঘরে গিয়ে উপস্থিত হলাম। 

দারোগা কে দেখার সাথে সাথে বিবেক বাবুর সুপ্ত রাগের বিস্ফোরণ হল, প্রায় চেঁচিয়ে বললেন 

" What the hell is this inspector? You guys don't know how to respect a VIP. Maybe you don't know I am the leading business tycoon of this city and I know your police commissioner Satyapal Singh very well. You want me to talk to him? My mother was killed last night and you guys are not letting me go to have a look at her dead body? What you think By the constitution of India you can do this to me?Better you don't mess with me inspector."

দারোগা হটাৎ করে রেগে এগিয়ে গিয়ে কয়েকটা কষিয়ে চর মারলেন বিবেক বাবুকে আর বললেন, এটা তোর অফিস আর আমি তোর টাকায় পেট চালানো কর্মচারী নই। আর একবার গলা তুলে কথা বললে জামা প্যান্ট খুলে রাস্তায় দার করিয়ে নেংটো করে পেটাবো আর তোর পেছন দিয়ে বের করবো ইংলিশ সাহিত্য। And for your kind information, By the constitution of India if police is suspecting someone as a murderer then the state police has rights to investigate. আর এখন যেটা বন্ধ ঘরের ভেতর হচ্ছে mr. Business Tycoon সেটা থানার লকআপ এ মাটিতে বসিয়ে পেটাতে পেটাতেও হতে পারতো। আর তুই যেই কমিশনার সাহেব এর গল্প দিচ্ছিলি উনি আমার শশুরমশাই। এই অনিন্দ ব্যানার্জির নাম শুনলে উল্টে তোকেই খিস্তি দেবেন। তাহলে বুঝতেই পারছিস এই পাগরাশির ক্ষমতা। তাই আল বাল না বকে যেটা জিজ্ঞেস করা হবে তার উত্তর দে। 


বিবেক বাবু সোফা চেয়ারএ বসে পড়লেন আর বির বির করে বলতে লাগলেন, বলুন কি জানতে চান?

এক গ্লাস জল মুখের সামনে এগিয়ে দিয়ে রুদ্রনীল বাবু বললেন, আপনি কিভাবে জানলেন যে খুন কাল রাতে হয়েছে? 

চোখ দুটো বড়ো করে বিবেক বাবু বললেন, মানে? আপনি আমায় খুনি বলছেন? বলছেন খুন টা আমি করেছি? আপনার মাথা ঠিক আছে? কে মশাই আপনি?  


রুদ্রনীল হাতজোড় করে হাসি মুখে বললেন " নমস্কার আমি সত্যানেশী"। 


Rate this content
Log in