Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

SUBHAM MONDAL

Romance Drama


5.0  

SUBHAM MONDAL

Romance Drama


ভালো আছি, ভালো থেকো

ভালো আছি, ভালো থেকো

3 mins 1.5K 3 mins 1.5K

"কেমন আছ ?"


এক মুহূর্তের জন্য হার্টবিটটা কেমন যেন থমকে যায়।সেই আওয়াজ, সেই অতি পরিচিত শব্দ দুটো।চমকে উঠে ডানদিকের সিটে বসা লোকটির দিকে তাকায় কথা।না চিনতে ভুল হয়নি, চেহারা এখনো প্রায় আগের মতোই আছে।শুধু চশমার পাওয়ারটা অল্প বেড়েছে বোধহয়।

প্রায় পাঁচবছর পর আবিরকে দেখল কথা আর সেই সঙ্গে মনে পড়ে যায় পুরনো দিনগুলো। কলেজের প্রথমদিনই সিনিয়রদের র‍্যাগিং এর শিকার হতে হয়েছিল তাকে।সাধারণ ইন্ট্রোডাকশনের পর তাকে সিনিয়র ছেলেদের মধ‍্যে একজনকে প্রপোজ করতে বলা হয়।শান্ত, মুখচোরা কথার তখন প্রায় 'ছেড়ে দে মা, কেঁদে বাঁচি' অবস্থা।পাশেই দাঁড়ানো ছেলেটির দিকে ঘুরে চোখ বুজে বলেই ফেলল ইংরেজিতে সেই অপূর্ব...না,না এই মুহূর্তে সবচেয়ে ভয়ঙ্কর শব্দ তিনটি।

"তাই নাকি !!" 

আওয়াজটা শুনে ভয়ে ভয়ে চোখ খুলে দেখে ছেলেটি ওরদিকে তাকিয়ে মুচকি মুচকি হাসছে।চশমার ঐদিকে থাকা চোখ দুটোতে যেন দুষ্টুমি খেলছে।লজ্জায় কান অব্দি লাল হয়ে গেছিল কথার।তারপর থেকে ছেলেটাকে এদিকে দেখলে ওদিকে পালাত সে।পূজার কাছে শুনেছিল ছেলেটির নাম আবির। আবির চ‍্যাটার্জী,থার্ড ইয়ার, ফিজিক্স অনার্স।

একদিন ক‍্যান্টিনে বসে পূজার জন্য ওয়েট করছিল, এমন সময় শুনতে পেল "কিরে, বয়ফ্রেন্ড আসতে লেট করছে নাকি? " ঘুরে তাকিয়ে দেখে..ও বাবা!!এ যে শ্রীমান চশমাওয়ালা মূর্তিমান,একেবারে মুখোমুখি।নাহহহ্...পালানোর কোনো রাস্তা নেই।অগত্যা ঢোক গিলে তোততোতলাতে বলল.."না.. মানে, ইয়ে...." ।

"কি ব‍্যাপার বল তো ? আমাকে দেখলে তুই এমন ঘাবড়ে যাস কেন? " অবাক হয়ে জিজ্ঞেস করল আবির।তারপর কি মনে হতে নিজেই বলল,"ও আচ্ছা, বুঝেছি।তুই এখনো সেই প্রথম দিনের ঘটনায় আটকে আছিস।আরে পাগল নাকি তুই!!ওসব আবার কেউ মনে রাখে !!ওটা তো জাস্ট একটা মজা ছিল।আর আমি ওতো খারাপও নই যে আমাকে দেখে পালিয়ে যেতে হবে।বুঝলেন ম‍্যাডাম !!" 

সেদিন আবিরের বলা ওই কথাগুলোর মধ্যে কিছু একটা ছিল যা কথার মনের জড়তাগুলোকে সরিয়ে অন্য একটা অনুভূতির জানান দিয়েছিল।তারপর থেকে কলেজে দেখা হলে হালকা হাসি থেকে গল্প করা, অফ পিরিয়ডে একসাথে ফুচকা খাওয়া, উইক এন্ডে মুভি দেখা.. কবে যে এসব অভ‍্যাসে পরিণত হয়েছিল তা নিজেই বুঝে উঠতে পারেনি ওরা এবং সেই অভ‍্যাসের পরিণতি পেয়েছিল 'ভালোবাসা' হয়ে।

.......................


"ভালো আছি, তুমি কেমন আছো ?" অতীতের স্মৃতি থেকে বর্তমানে ফিরে জিজ্ঞেস করে কথা।

"এই চলছে আরকি‌।" উত্তাপহীন গলায় নির্বিকারভাবে বলে আবির।

"কথা, আমি জানি, তুমি আমার উপর খুব রেগে আছ।কিন্তু বিশ্বাস করো, সেইসময় আমি সত্যিই বুঝতে পারিনি এমন একটা পরিস্থিতি তৈরী হয়ে যাবে।আমি ভাবতাম আমার মা, বাবা দুজনেই খুব উদারমনস্ক,উচ্চবিত্ত- নিম্নবিত্ত এসব মানেন না। কিন্তু ওনাদের কাছে যে সোস্যাল স্ট্যাটাস এতটাই ম‍্যাটার করে জানতাম না।পারলে আমায় ক্ষমা করে দিও প্লিজ।" মাথা নীচু করে কথা গুলো বলে আবির।

কিছুক্ষণ দুজনেই চুপ করে বসে থাকে।একের পর এক ভাঙা স্বপ্নগুলো ভেসে উঠে স্মৃতিপটে।

"মাম্মাম..." 

মিষ্টি একটি ডাকে সম্বিৎ ফেরে দুজনের। আবির দেখে একটি ছোট্ট আড়াই-তিন বছরের বাচ্চা মেয়ে দৌড়ে এসে ঝাঁপিয়ে পড়ে কথার বুকে আর তার ঠিক পিছনেই প্রায় আবিরেরই বয়সী একজন হাসিমুখে এগিয়ে আসছে।ছেলেটি এসেই কথার পাশের সিটে ধপ্ করে বসে বলকরে," আচ্ছা, তুই সিওর তো, হস্পিটালে আমাদের বাচ্চা বদল হয় নি। এই দস‍্যি মেয়ে আমাদের কি করে হয় রে !!!!! পুরো এয়ারপোর্ট আমাকে দৌড় করিয়ে ছেড়েছে এই বিচ্চুটা।"

অবাক বিষ্ময়ে তাকিয়ে দেখে আবির, কথার মুখে এক অপূর্ব মুগ্ধতা ছড়িয়ে আছে ছেলেটাকে দেখে।পরম যত্নে কপালের হাল্কা ঘাম মুছে দিচ্ছে নিজের ওড়নায়।অজান্তেই বুকের বামপাশটা যেন অল্প মোচড় দিয়ে উঠে আবিরের।ততক্ষনে 'কলকাতা টু দিল্লি' ফ্লাইটের ফাইনাল এনাউন্সমেণ্ট হয়ে গেছে।ছেলেটি ইশারায় কথাকে আসতে বলে বাচ্চা মেয়েটাকে কোলে তুলে লাইনের দিকে এগিয়ে গেল।কথাও ততক্ষণে উঠে দাঁড়িয়েছে।তবে যাওয়ার আগে শান্ত অথচ দৃঢ় গলায় আবিরের দিকে তাকিয়ে বলল, "তোমাকে ভালোবেসেছিলাম আবিরদা, কিন্তু অবান্চ্ছিত একটা সম্পর্কে সারাজীবন বেঁধে রাখব তো বলিনি কোনোদিন। জোর করে আর যাই হোক অন্তত ভালোবাসা যায় না।আমি ভালো আছি.. তুমিও ভালো থেকো, আসছি।"

নির্বাক দৃষ্টিতে কথার যাওয়ার দিকে তাকিয়ে ভাবে আবির, সত্যিই তো, জোর করে আর যাই হোক, ভালোবাসা যায় না। তা নাহলে সে কেন আজ অবধি নেহাকে ভালোবাসতে পারল না। শুধুমাত্র নিঃশব্দে স্বামীর কর্তব্যই করে চলেছে...

         


Rate this content
Log in

More bengali story from SUBHAM MONDAL

Similar bengali story from Romance