Pintu Mondal

Romance


3  

Pintu Mondal

Romance


একটি বিচ্ছেদপূর্ণ প্রেম

একটি বিচ্ছেদপূর্ণ প্রেম

2 mins 7 2 mins 7


তোর দু চোখে সন্ধ্যা যখন 

আমার তখন ক্লান্তি ভোর 

একাই আমি নিজেকে গড়ি 

করবো না ক্ষতি এতটুকু তোর ।


ভালো থাকিস আপন করিস 

আপন হতে করবো না জোর 

আমার দুখে সুখী আমি 

সৃষ্টি যখন ভোলায় মন , 

তুই কতটা ভালো আছিস 

বলবে সে তো আপনজন ।


লিখছি না চিঠি ! 

এ আমার মনের কথা ---- 

জানিস আমি ভালো আছি 

তোকে নিয়েই স্বপ্ন আঁকা 

বলতে চাইনি জানিয়ে দিলাম 

তোর সাথে কি আর হবে দ্যাখা ! 


তোর চেনা পথ সেই রাস্তা 

যেখানটাতে বাঁকা পথ 

তোর মতামত জানতে চেয়ে 

জানিয়ে ছিলাম আমার মত । 


সেই পথেরই নকসী কাঁথা 

আজও আমার গায়ে দিয়ে 

তোকে নিয়েই বেঁচে থাকা ।

-------------------------------------

ফিরলি যখন বছর দশ 

ভুলেই ছিলাম অতীত সব 

বলতে এলি অনেক কথা ,, 

বললাম রেগে চাইনা শুনতে ---- 

তোর মুখেতে আমার যশ ! 


------- চুপটি করে দাঁড়িয়ে ছিলিস 

    লজ্জায় তোর মাথা নিচু , 

    ছোট্ট করে বললি শুধু ..... 

    দোষ ছিল না আমার কিছু ! 


আমি ছিলাম চুপটি করে


ফিরে বললি ---- 

সেদিন ছিলাম বাবা মায়ের বাধ্য মেয়ে 

জানি তুই আছিস রেগে , 

ভেবেছিলিস ভালোই আছি 

বড়লোকের বর পেয়ে ! 


তারপর সে অনেক কথা 

       তুই কি আর শুনবি সেসব 

       আমার মনে দুখের ব্যাথা ? 


       তবু তোকে বলছি আমি 

       চুপটি করে একটু শোন ,, 


মায়ের ছিল প্রতিজ্ঞাপণ 

       কিচ্ছুটি আর ভাবলো না যে 

       ছুড়ে দিল মৃত্যুবান।

 

    এসব কথা কেউ জানেনা 

    হয়নি প্রকাশ , 

    একদিন সেই গোধূলি লগন 

    মালা বদলের মালাবদল 

    আমার গলায় দড়ির ফাঁস।


দশটি বছর পরে এসে 

এসব কথা বলছিস কেন ?  

      জিজ্ঞেস তো করলি না যে ? 


আজও তোর অভিমান ! 


তোর মুখেতে তাকিয়ে ছিলাম 

পলকহীন অবাক চোখে ,

রাগ" যে তখন চরম আমার 

চিৎকারে বললাম আমি 

যেথায় ছিলিস যা চলে যা 

 কেন এলি ফিরে আবার ? 


চুপটি করে চলে যেতে 

ফিরে তাকিয়ে বললি কেঁদে 


তিনকুলে যে নেই তো কেউ 

      বাবা মা তো কবেই গেছে , 

      অকালে যে বরটি গেলো 

      সন্তানহীন একা আমি ,, 

       তাড়িয়ে দিল ক'দিন আগে ! 


আমি আছি চুপটি করে 

ভিতর আমার কাঁদছে জানি 

শক্ত হয়ে কঠিন পাথর --- 

নিজেকে আমি তুলছি গড়ে ,,,,, ! 


নীরব দেখে বললি তুই ,, 

একটুখানি জায়গা দিবি 

      শুধু একটু মাথা গোঁজার ? 

      আর কিছু চাইনি আমি , 

      লোকের বাড়ী কাজ করে 

       নিজের পেট চালিয়ে নেব 

      যে কটা দিন থাকব আমি ।

    শুধু ঐ কুকুর গুলোর থেকে বাঁচি !


জিজ্ঞেস তো করলি না যে 

        সন্তানহীন কেন আমি ? 


অনেক রাগ ক্ষোভ অভিমান মুছে ফেলে 

ছোট্ট করে বললাম আমি 

চল ,,, ঘরে চল ,,, আমার ঘরে ! 


দাঁড়ালি যে ? কি দেখছিস অমন করে ? 

সত্যি কিনা ? 

আস্তে করে হাতটি ধরে 

একটু মৃদু হাসি ভরে 

বললাম আমি ,,,,,, 

কি পরিচয়ে থাকবি ঘরে ?? 


অসহায় চোখ আমার চোখে 

জড়িয়ে ধরে বললাম ওরে

  এই বসন্তে কেন এলি 

  সাদা রঙ সাথে নিয়ে ? 

  জানিস নে তুই ? 

  পলাশ আমি ভালোবাসি ।


একটু দূরে পড়ে ছিল 

টুকটুকে লাল আবির গুঁড়ো 

তারই একটু তুলে নিয়ে 

রাঙিয়ে দিলাম সিঁথিতে তোর ! 


অবাক চোখে বিস্ময়ে 

তাকিয়ে আছিস আমার চোখে ,,,, 

একটু হেসে বললাম আমি 

    আপন হতে আজও কিন্তু 

    এতটুকু করিনি জোর ।


আমরা দুজন পায়ে পায়ে 

      বকুল শাখে একটু দূরে 

      সানাই বাজে কোকিল সুরে 

      আপন হয়ে বললি কেমন ,,,, 

   

      ভালোবাসার সত্য পথ 

      যা রেখেছি যতন করে , 

      তোকেই দেব আপন করে ।


বললাম আমি -- 

নয় কথা আজ আপন পর 

অনুরাগের হাসি ভরে 

তোর চিবুকে হাতটি রেখে 

বললাম শুধু , 

আগে ছিলাম যেমন আমি 

 আজও আছি শুধুই তোর ।


Rate this content
Log in

More bengali poem from Pintu Mondal

Similar bengali poem from Romance