arundhati rakshit

Inspirational


1  

arundhati rakshit

Inspirational


BRUNO

BRUNO

3 mins 4.3K 3 mins 4.3K

BRUNO র সাথে গয়নার রূপকথার গল্পর যে এতো তাড়াতাড়ি ভাব হয়ে যাবে ভাবিনি আগে কখন ও।এখন ওদের দুজন কে দেখলে এক মিনিট এর জন্য ও মনে হয়না যে ৭ দিন আগেও দুজন দুজন কে চিনতো না..এরকম ও হয়? আমার ভাবনার বাইরে ছিল।

যখন গয়না কে নিয়ে বাড়ি আসছিলাম চিন্তায় ছিলাম BRUNO কে নিয়ে,জানিনা কতটা ACCEPT করবে আমার আদরের লাডলা এই গয়না কে।

ও HAY বলতেই ভুলে গেছি আমাদের সবার পরিচয়,আমি রিক।আসলে ঋত্ত্বিক আমার নাম,বন্ধু বান্ধব রা রিক বলেই ডাকে,বাড়ির লোকরাও তাই,বছর দু এক হলো কলকাতা এসেছি চাকরির সুবাদেই,বাড়ি আমার শিলিগুড়ি,এলিজাবেলে ব্যাচেলর,ভাবলেও মজা পাই,কেন জানিনা।

BRUNO আমার প্রিয় ল্যাব্রাডার,,সুন্দরী BITCH যাকে বলে,আমার নিজের থেকেও প্রিয় এই মানুষটি আমার কাছে,,হ্যা মানুষ..ওকে আমি এ ছাড়া অন্য কিছু ভাবতে পারিনা..আমি নিজেকে ওর HUMAN বলেই থাকি।তার জন্য বন্ধুবান্ধবের কাছে অনেক ব্যঙ্গ বিদ্রুপ শুনি,তাতে কিছু যায় আসে না আমার।

গয়না আমার প্রিয় খরগোশ ..এতো সুন্দর খরগোশ আমি খুব কম দেখেছি।ও BY BREED  'লায়ন হেড " খরগোশ..ওকে দেখলে আমার তুলোর বল ছাড়া আর কিছু মনে হয় না।

যাই হোক,ক্রমে ভাব জমে উঠলো দুজনের।আমার BRUNO সারাক্ষন ওর সাথে খেলে বেড়ায়,,আমি বাড়িতে যখন থাকিনা অসুবিধেয় নেই,দুজন দুজন ক সঙ্গ দেয়,খেলাধুলো,ঘুমানো.খাওয়া দাওয়া সব একসাথে,যদিও দুজনের ফুড হ্যাবিট্স আলাদা,কিন্তু কোনো অসুবিধেয় নেই,নিরামিষ আর আমিষ মিলিয়ে দুজন এ বেশ দিন কাটিয়ে দিচ্ছে.

বেশ কয়েক মাস হলো খেয়াল করছি BRUNO গয়না কে নিয়ে খুব পোসেসিভ।বাড়িতে কেউ এলে আগে তো গয়না কে ঘাড়ে কামড়ে খাটের তলায় ঢুকিয়ে দিত।কি কান্ড,আমি হেসে কুল পাইনা,এরম আরো কত মজার কান্ড,লিখতে গিয়ে রাত ভোর হয়ে যাবে

নতুন ফ্লাট এ শিফট হয়েছি রিসেন্টলি..বরাবর ই আমায় HIGHRISE বিল্ডিং গুলি ATTRACT করে,,জানিনা কেন,হয়তো মাঝরাত এ বারান্দায় দাঁড়িয়ে ঝিলমিল শহরটা যখন দেখি আর ফুরফুরে হাওয়া যখন পাই মনটা হারিয়ে যায় কোন অজানায়,,তারা গুলো মনে হয় বড্ডো কাছেই,,ফিস ফিস করে কিছু বলতে চায়।শিফট হওয়ার পর মা বাবা কে নিয়ে আসবো ঠিক করেছি।ইন্টেরিয়র এর কাজ কিছু বাকি,বারান্দা তে গ্লাসডোর করবো উইথ স্লাইডিং ,,তার ও তোড়জোড় চলছে।

সেদিন রোববার ..অরিজিৎ এর বাড়ি পার্টি যাবো কিন্তু ফিরে আসার প্ল্যান আছে তাড়াতাড়ি,কারণ BRUNO আর গয়না কে যে দেখাশোনা করে ও আজ তাড়াতাড়ি বাড়ি যাবে বলে দিয়েছে দুদিন আগে থেকেই..ওকে বেরোবার আগে বলে গেলাম যদি আমার ফিরতে একটু লেট হয়,তুমি বেরিয়ে যেও লক করে,ওরা আধ /১ ঘন্টা একা থেকে যেতে পারবে,ততক্ষন এ আমি ফিরে যাবো।

সময়মতোই বেরোলাম অরিজিৎ এর বাড়িথেকে বাইরে বৃষ্টি,অগত্যা ট্রাফিক স্লো,BIKE নিয়ে কতই বা আর কারিকুরি করবো,ফিরতে একটু লেট ই হয়ে গেলো.কি জানি কি করছে আমার ছেলে মেয়ে দুটো,,একটু চিন্তা হলো মাথায়।

৯ টার মধ্যে ঢুকে গেলাম পাড়ায়..BACKGATE দিয়ে ঢুকলে লিফ্ট তা সামনে পরে তাই ব্যাক গেট দিয়ে ঢুকে লিফ্ট এ উঠেই বোতাম টিপে সোজা ১৪ তোলা, MRS সাহার উল্টোদিকের ফ্লাট এ জোরে MUSIC বাজছে,হয়তো কোনো পার্টি হচ্ছে,

লক খুললাম,কিন্তু খোলার সময় বাইরে থেকে রোজ টের পাই BRUNO দরজা খামচাচ্ছে,,আজ কিছু শুনতে পেলাম না.লক খুলে ডাইনিং স্পেস এর আলোটা জ্বালালাম,আলোটা বন্ধই বা কেন..পইপই করে বলেছি ছেলেটাকে আলো জেলে রাখতে,কিন্তু দুজনের একজনের ও কোনো সাড়াশব্দ নেই।এ ঘর ওঘরে নাহ নেই,,ব্রুনো কোথায় গেলো..পুচকি তা মাঝে সাঝে খাটের তলায় ঢুকে থাকে..কিন্তু BRUNO

??

ডেকেও সারা পাওয়া গেলো না.বাকি রইলো বারান্দায়..এই দরজাটা খোলা কেন..এটা লকড রাখতে বলেছি,,কাজ হচ্ছে,ঐদিকের ওয়ালটা ভাঙা হচ্ছে..কি যে করে না..দৌড়ে বারান্দায় এলাম..কেউ কোত্থাও নেই।লাইট জ্বালালাম..নাহ

..হটাৎ কি মনে হলো একটু ঝুঁকে দেখতে গেলাম,,,এ কি?? এ আমি কি দেখছি..কার্নিশ এ বসে গয়না.,থর থর করে কাঁপছে তাড়াতাড়ি ঝুকে পরে ওকে টেনে তুললাম..

দরজায় কলিং বেল এর আওয়াজ.দৌড়ে গিয়ে দরজা খুলে দেখি BRUNOR নেক স্ট্র্যাপ ওয়াচম্যান এর হাতএ মাথাটা দপ দপ করে উঠলো,গা গুলিয়ে উঠলো তার সাথে,যা বোঝার বুঝেই গেলাম।

ছটফটে গয়না খেলতে খেলতে লাফ দিয়ে কার্নিশ এ পরে যায়,যেহেতু ওয়ালটা ভাঙা ছিল কিছুটা কাজের জন্য,আর ওকে বাঁচাতে গিয়ে আমার BRUNO কিছু না বুঝেই প্রাণ পন লাফ মেরেছিলো শুধু...


Rate this content
Log in

More bengali story from arundhati rakshit

BRUNO

BRUNO


3 mins read

Similar bengali story from Inspirational