Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Pronab Das

Others


1  

Pronab Das

Others


একটি উৎসবের স্মৃতি।

একটি উৎসবের স্মৃতি।

2 mins 696 2 mins 696

একটা উৎসবমুখর দিনের স্মৃতি মাঝে মাঝেই মনেপড়ে। ঘটনাটি বছর চারেক আগের। তখন আমি বালিগঞ্জে থাকি। দিনটা দুর্গাপূজার অষ্টমী কি নবমী, ঠিক মনে পড়ছে না ।এমনিতেই দক্ষিণ কলকাতার পূজোগুলো যেমন বিগ বাজেটের হয় তেমনি জন জোয়ারের চাপ ও থাকে একটু বেশী। স্ত্রী পুত্রকে সঙ্গে নিয়ে সেদিন বেশ কয়েকটা পুজো প্যান্ডেল ঘুরে ঘুরে ঠাকুর দেখলাম। ফেরার সময় আমার এক পরিচিত দম্পতি বন্ধুর সাথে দেখা। তারা গড়িয়া হাটের কাছে একটা বড় পূজা প্যান্ডেলের দিকে যাচ্ছে এবং তাদের অনুরোধে আমরাও তাদের পায়ে পা মেলালাম । কখনো আইসক্রিম কখনো ঠান্ডা পানীয় খেতে খেতে জন প্লাবনের মধ্যেই ধীরে ধীরে সেই পূজা প্যান্ডেলের সম্মুখে পৌঁছে গেলাম। পাট দিয়ে প্যান্ডেল ও ঠাকুরের অমন কাজ সত্যিই শিল্পীর অসাধারণ দক্ষতার বলিষ্ঠ দাবী রাখে। কয়েক মুহূর্ত যেন দেব লোক থেকে বিচরণ করে এলাম বলে মনে হল। এরপর বাইরে বেরিয়ে প্যান্ডেল সংলগ্ন একটা ভেলপুরীর দোকানে দাঁড়িয়ে সবাই ভেলপুরী খাচ্ছিলাম। হঠাৎই পাশ থেকে একটা পোড়া গন্ধ নাকে এল। মাথা ঘুরিয়ে তার উৎস খুঁজে দেখতেই বুকের ভেতর তা কেমন ঠান্ডা হয়ে গেল। পাটের প্যান্ডেলের পেছন দিকে, ঠিক হাত তিনেক দূরে ডাই করে ফেলে রাখা প্লাস্টিকের আবর্জনায় কেউ মনে হয় ধূমপানের জ্বলন্ত অবশিষ্ট অংশটি ফেলায় তাতে সবে আগুন ধরে উঠেছে। কি করব, কাকে বলব কিছু বুঝতে না পেরে পাশের কফির দোকানের মিনারেল ওয়াটারের বড় জারটি নিয়ে ছুট লাগলাম আগুন নেভাতে। সব জলটাই ঢেলে দিলাম তাতে। আগুনটা পুরোপুরি নিভে যেতেই খুব স্বস্তি পেলাম।


কফির দোকানের মালিক প্রথমে রাগারাগি করলেও পরে আসন্ন ভয়াবহ বিপদ থেকে রক্ষা পাওয়ায় ক্ষমা চেয়ে নেন। এরপর গরম গরম কফিতে চুমুক দিয়ে বাড়ির পথে পা বাড়ালাম।

* * *


Rate this content
Log in