Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Mousumi Roy

Others


1  

Mousumi Roy

Others


ভূতের ভয়

ভূতের ভয়

2 mins 983 2 mins 983

আমি ছোটবেলা থেকেই আর কিছু নয় খুব ভুতের ভয় পেতাম। আমাদের পুরানো বাড়িতে স্নানঘর ছিলো এক তলায় সিঁড়ির নিচে,সেখানে ছিলো মস্ত এক চৌবাচ্চা। দিনের বেলা যেতেই আমি ভয় অস্থির হয়ে যেতাম তো রাতে আমার হাল আরো খারাপ হত,তার উপর যদি পেট খারাপ হত তখন ভাবতাম এর চেয়ে আমার মরে যাওয়াই ভালো। আমাদের বাড়িতে এক দিদি থাকতো বাড়ির সব কাজ করার জন্য, রাতে সেই আমার একমাত্র আশা ভরসা ভগবান ছিলো। একদিন দিনের বেলায় চারিদিক অন্ধকার করে বৃষ্টি শুরু হয়েছে আমি তখন ক্লাস ফোরে পড়ি,স্নান করতে গেলাম একাই কারণ বৃষ্টিতে একটু ভিজতেও হবে।সাথে ছায়াদি গেলেতো দেবেনা ভিজতে। ভিজে ঠিজে মনের আনন্দে স্নান করতে ঢুকলাম আর ঠিক যখন মুখ চোখ সাবান ভর্তি গেলো কারেন্ট চলে, আর আমায় কে পায় তখন। চৌবাচ্চাটায় বড্ড ভয় করত মনে হত এই কেউ আমায় টেনে নেবে ভেতরে আর বেরোতে পারবনা। সেই মুহুর্তে চিৎকার করে ছায়াদিকে মা কে ডাকছি ওরাও শুনতে পাচ্ছেনা একে দরজা বন্ধ তায় বৃষ্টির শব্দ। হঠাৎ মনে হল আমার জামা ধরে কেউ টানছে পিছন থেকে আমি তো কাঁদতে কাঁদতে অজ্ঞান। অনেক পরে ছায়াদি এসে আমায় দরজা খুলে কোলে করে উপরে নিয়ে গেছে। যতই বলি ভুত ছিলো ততই হাসে বলে তোর জামাটা দেওয়ালের পেরেকে লেগে ছিঁড়ে গেছে। ভুত বলে কিছু নেই। 

 কিন্তু তারপর থেকে ছায়াদি কে দাঁড় করিয়ে আমি স্নানঘরে যেতাম। 

 এর পরের বছর মা আমায় মসলন্দপুরের হোস্টেলে দিয়ে দিলো, যেখানে ইলেক্ট্রিসিটি থাকতোই না বেশির ভাগ সময় হ্যারিকেন বা ল্যাম্প ভরসা। চারি দিকে বড় বড় আমগাছ ভর্তি আর বাইরে তিনদিকে ধানক্ষেত, বাড়ি ঘর দু একটা। রাতে তক্ষক ডাকতো, যদিও আমি কিসের ডাক জানতাম না বাকিদের কাছে শুনেছি কিন্তু খুব ভয় করত। আমার ঘর থেকে বাথরুম অনেকটা দূরে আর ভিতরে পর পর অনেক গুলো ভাগ আলাদা আলাদা দরজা দেওয়া। রাতে সবাই ঘুমালে খুব কষ্ট হত কিন্তু কিছু তো করার নেই সবাই ক্লান্ত হয়ে ঘুমাতো আর ছায়াদিদিও ছিলোনা যে সাথে যাবে। অন্ধকার রাতে হ্যারিকেন নিয়ে যেতে হত কোন আওয়াজ শুনলেই ভাবতাম আর বোধহয় মা বাবা বোনেদের দেখতে পাবোনা।  

 রাতে বিছানায় শুয়ে খুব কাঁদতাম আর মনে মনে বলতাম ' মা তুমি তো জানতে আমি কত ভীতু তাও আমায় এখানে রেখে দিলে তোমার তিন মেয়ের মধ্যে আমি কি এতটাই ব্রাত্য হয়ে গেছিলাম? ' না বলিনি একথা মা কে কোনদিন, আর তখন থেকে বুঝতে শিখেছিলাম জীবনটা আমার একার সেটা ভুত হোক বা নিজের মানুষ তাদের সাথে লড়াই আমায় একাই লড়তে হবে।  

 ভুতে ভয় আজো পাই তবে তার চেয়েও বেশি ভয় পাই আমার নিজের লোকদের সে যেই হোক। ছায়ার সাথে যুদ্ধ করা সহজ কিন্তু আপনজনদের সাথে না বোধহয়।

 ভালো থাক ভুতেরা তারা আমায় সাহসী বানিয়ে দিয়েছে। 


Rate this content
Log in