Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Sanghamitra Roychowdhury

Abstract Classics Inspirational


3  

Sanghamitra Roychowdhury

Abstract Classics Inspirational


লকডাউনের রোজনামচা ২১

লকডাউনের রোজনামচা ২১

2 mins 267 2 mins 267

ডিয়ার ডায়েরি, ১৪ই এপ্রিল, ২০২০... লকডাউনের একবিংতিতম দিনে "নববর্ষ উদযাপন"


একদম অন্যরকম এক অনুভূতি নিয়ে শুরু হলো আজ বাংলা নতুন বছর ১৪২৭... আজ যদিও লকডাউন শেষ হওয়ার কথা ছিলো... কিন্তু হলো না। লকডাউন বিবর্ধিত হলো। তবে স্বীকার করতে আজ আমার বিন্দুমাত্রও দ্বিধা নেই যে... লকডাউনের এই দিনগুলিতে জীবনের পাঠশালায় পেলাম গুচ্ছ গুচ্ছ নতুন পাঠ। লকডাউনে গৃহবন্দী হয়ে থাকতে হচ্ছে বলে কত মানুষের কত মন খারাপ! অথচ এই অবস্থায় কত মানুষ নিরন্ন... না খেতে পেয়ে ধুঁকছে, তাদের কথা ভাবতে শেখালো পরিস্থিতি চোখে আঙুল দিয়ে। আবার নিজেকে অত্যাধুনিক ও শিক্ষিত বলে দাবী করা মানুষই হয়তো প্রথম বিদেশ থেকে আমদানি করলো এই মারণ ভাইরাস... করোনা রোগ, শিক্ষিত মানুষই তো ছড়াচ্ছে রোগ... সেই নিয়ে চাপানউতোর চলেছে।


প্রশ্ন দাগিয়ে দিয়েছে মনে... শিক্ষা সম্বন্ধে। নিরন্ন অভুক্ত মানুষগুলোর থেকে আমরা তো দিব্যি ভালো আছি, আরামে আছি... এই উপলব্ধি করতে শেখালো। বরঞ্চ এতটা সময় শেষ কবে কাটিয়েছি সবাই নিজের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে? ভাবালো এই বিষয়টিও। সবাই মিলে বাড়ির কাজ কখনো করেছি কি? অথচ অবশ্যই করা উচিৎ ছিলো। ছোটবাচ্চারা মা বাবাকে একসঙ্গে পেয়েছে কতদিন পরে? ভাববার বিষয়। এরপর আবার তো ছোটা শুরু হবে সবার... আমাদের এবং ওদের। এই ক'দিন ওদের সঙ্গে খেলা করে, গল্প পড়ে, বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলা গেলো! একি কম পাওয়া? বুক ভরে শ্বাস নেওয়া, পাখির ডাক শোনা, আকাশের নীল দেখা, রাতে তারা খোঁজা... কতদিন পরে টুকরো সুখে আর নিজের শখে... ঝাঁপি ভরা! এই প্রাপ্তির কী মূল্য নির্ধারণ হয়?


 যাদের সবচেয়ে বেশি অবহেলা করেছি হয়তো বছরের পর বছর, তাদের নতুন করে ভালোবাসায় কী অপার শান্তি! জানা ছিলো কি? আসলে এই সব ছোট চাওয়া পাওয়া আর শখ আহ্লাদ কিছুই হারিয়ে যায়নি... মনের মধ্যেই লুকিয়ে ছিলো সব... কবে আবার ডাক পাবে তার অপেক্ষায় আশা নিয়ে। এই আশাটুকুরই বড্ড জোরদার জোর... অবসাদকে কাছে ঘেঁষতেই দেবে না। লকডাউন কান টেনে ধরে শেখালো। শারীরিক দূরত্ব বেড়েছে পরিবারের বাইরের মানুষের সাথে হয়তো, তবে সামাজিক আর মানসিক নৈকট্য গড়ে উঠেছে যে... একথাটাও তো অনস্বীকার্য। শুভেচ্ছা জানাই নিজেকে, নিজের পরিবারকে, বন্ধু স্বজন আত্মীয়বর্গকে, নিজের সমাজ লোকালয়কে, নিজের রাজ্য ও দেশকে... এই সসাগরা মাতা ধরিত্রীকে... নীরোগ ও স্থিতিশীল হোক নববর্ষ... শুভ হোক ১৪২৭-এর প্রত্যেক মুহূর্ত!


Rate this content
Log in

More bengali story from Sanghamitra Roychowdhury

Similar bengali story from Abstract