Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published
Participate in 31 Days : 31 Writing Prompts Season 3 contest and win a chance to get your ebook published

Nikhil Mitra Thakur

Inspirational


3  

Nikhil Mitra Thakur

Inspirational


দেখো তো চিনতে পারো কি না

দেখো তো চিনতে পারো কি না

2 mins 11.5K 2 mins 11.5K

মেধাবী ছেলে ছিল বলে ছোট বেলায় স্কুলে, পাড়াতে খুব সমীহ করতো লোকে। বন্ধু-বান্ধবীদের ছিল ঈর্ষা মেশানো ভালোবাসা। মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে সৌরভ। চেহারা ছিল খুব মিষ্টি। যে কোন যুবতীর আঙুর ফল টক হওয়ার পক্ষে যথেষ্ট। বেশ চলছিল সে নিজের রাস্তায় সৌরভ ছড়িয়ে। চারিপাশে ভনভনে মৌমাছি উড়িয়ে। উচ্চমাধ্যমিকে রাজ্যে ২০ জনের মধ্যে থেকে বিজ্ঞান বিভাগে পাশ করলো সৌরভ। ডাক্তারি পড়ার জন্য জয়েন্ট পরীক্ষায় খুব ভালো রেঙ্ক করে কোলকাতার নামী মেডিকেল কলেজে ভর্তি হলো। ডাক্তারি পড়া বেশ ভালো এগোছিল। পরপর কয়েকটি সেমিস্টারে ভালো ফল করলো। তারপর ঘটলো ছন্দপতন।

ডাক্তারি পড়তো ওর সাথে টলিউডের এক অভিনেত্রীর সুন্দরী ললনা। মেধাবী ছেলে হয়ে বাদলা পোকার মতো আলোর টানে ছুটলো সে মরিবার তরে। সিমেনায় অভিনয়ের সুযোগ পেল কারো সুপারিশে। দুই একটি সিনেমাতে খুব ভালো অভিনয় করে নামযশ ছড়িয়ে গেল সমাজে। তারকা স্ট্যাপ পড়লো অশ্বমেধের ঘোড়ার মতো পিঠে। ডাক্তারি পড়া উঠলো শিকেয়। সৌরভ এখন ছোটে আরো আরো বেশি বইয়ে অভিনয়ের কনট্রাক্ট পেতে। কোন গড ফাদারের আশীর্বাদ নেই তো ওর মাথায়। হচ্ছে সব হাতছাড়া কোন অজানা যাদু মন্ত্রে। কিছুদিনের মধ্যে ও হয়ে গেল ভোকাটা বেকার। ইন্ডাস্ট্রির ব্যর্থ অভিনেতা। 


যার টানে নেমেছিল সৌরভ নিজের নিশ্চিত প্রতিষ্ঠিত জীবন ছেড়ে অনিশ্চিত জীবনে সে এখন রঙিন ছাতার নিচে প্রতিষ্ঠিত নায়িকা ইন্ডাস্ট্রিতে। সৌরভ এখন ওর কাছে পাপড়ি বিহীন শুকনো গোলাপের অবশিষ্ট কালো কুৎসিত অংশ মাত্র। চোখ তুলে তাকায় না সৌরভের দিকে।

সৌরভ চেয়েছিল অত্মহত্যা করতে,পারেনি করতে; যতবার করতে গেছে ততবার ভেসে উঠেছে দুটো শুকনো গ্রামীন মুখ মনের আয়নাতে। ফিরে এলো সৌরভ গ্রামে তাদের টানে।

পেশা হল চাষবাস। চাষ করতে করতে নিজের মনের খেয়ালে সৌরভ আবিস্কার করে ফেলে এক নতুন অজৈব সার। তার পেটেন্ট নিয়ে হলো সে কোটিপতি। বাউন্স করা বলের মতো সে আবার উঠলো উপরে। বাংলা সিনেমা ইনডাস্ট্রিতে তার অনেক টাকা খাটে এখন। তার অঙ্গুলি হিলনে কতজনের অভিনয়ের কাজ মেলে ইন্ডাস্ট্রিতে।

সেই নায়িক এখন মাঝবয়েসী মহিলা, নেই গ্ল্যামার, নেই গড ফাদার,নেই অভিনেত্রী মা। ডিভোর্স, আর বিয়ে মিলে হয়ে গেছে জীবনে পঞ্চপান্ডব। এখন একটা কাজ পাওয়ার জন্য তাকে ইন্ডাস্ট্রিতে ইঁদুরের মতো দৌড় ঝাঁপ করতে হয়।

অবশেষে, সৌরভের টাকায় চলা একটি বইতে পার্শ্বচরিত্রের কাজ পেলো সে অজানা কোন অঙ্গুলি হেলনে।শুটিংয়ের কোন এক সেটে সৌরভ হলো হাজির। সব কলাকুশলী শশব্যস্ত তাকে সম্বর্ধনা দেওয়ার জন্য; তার কাছের মানুষ হওয়ার কতো চেষ্টা করে চলেছে প্রত্যেকে নিজের নিজের মতো করে। আর, সৌরভ মনে মনে শুধু বলে চলেছে দেখতো সুনয়না চিনতে পারো কি না?


Rate this content
Log in

More bengali story from Nikhil Mitra Thakur

Similar bengali story from Inspirational